পাকিস্তানকে লজ্জায় ডুবিয়ে উইন্ডিজের বিশাল জয়

Vinkmag ad

চলমান বিশ্বকাপ শুরুর আগেই ক্রিকেট বোদ্ধারা করেছেন বিশ্লেষণ, যেখানে ঘুরেফিরে আলোচনায় উঠে আসে রান বন্যার বিশ্বকাপের কথা। অনেকেই তো অগ্রিম ঘোষণা দিয়ে বলেছেন এবারের বিশ্বকাপ দিয়েই ক্রিকেট বিশ্ব দেখতে পারে ৫০০ রানের ইনিংস। গতকাল টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে দেখা গেছে ৩০০ এর উপরে রান। তবে আজ (শুক্রবার) মুদ্রার উল্টো পিঠটা দেখালো উইন্ডিজ, পাকিস্তানকে মাত্র ১০৫ রানে বেঁধে ফেলে ম্যাচ জিতে নিলো ৭ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে।

61418157 2326894547522206 8805208669386964992 n

আজ (৩১ মে) মাঠে গড়িয়েছিলো দ্বাদশ বিশ্বকাপের দ্বিতীয় ম্যাচ, নটিংহ্যামের ট্রেন্ট ব্রিজে মুখোমুখি হয়েছিলো দুই দল পাকিস্তান ও উইন্ডিজ। ম্যাচে টসে জিতে আগে বল করতে নেমে পাকিস্তানি ব্যাটসম্যানের রীতিমত নাকানিচুবানি খাইয়েছেন ক্যারিবিয়ান বোলাররা।

পরে ১০৬ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে উইন্ডিজের দুই ব্যাটসম্যান ক্রিজ গেইল আর শাই হোপ শুরুটা বেশ দুর্দান্তই করেন। তবে ইনিংসের বয়স যখন ৪ ওভার ৩ বল, তখন প্রথম ব্যাটসম্যান হিসাবে হোপ আউট হয়ে ফিরলে ভাঙে উদ্বোধনী জুটিতে ৩৬ রানের পার্টনারশিপ। এরপর তিনে ব্যাট করতে নামা ড্যারেন ব্রাভোকে নিজের দ্বিতীয় শিকার বানিয়ে খালি হাতে ফিরিয়েছে মোহাম্মদ আমির।

দুই ব্যাটসম্যান ফিরে গেলো একপ্রান্ত আগলে রেখে ব্যাট করে গেছেন উইন্ডিজের আরেক ওপেনার ক্রিস গেইল, তবে দলীয় ৭৭ রানে আমিরকে উইকেট দিয়ে আসার আগে গেইল তুলে নিয়েছেন নিজের ব্যক্তিগত অর্ধশতকটা। পরে পুরানের ১৯ বলে ৩৪ রানের সাথে হেটমেয়ারের ৭ রানে মাত্র ১৩ ওভার ৪ বল থেকেই ৭ উইকেটের দানবীয় জয় তুলে মাঠ ছাড়ে উইন্ডিজ।

received 2012388078869882

এর আগে শুরুতে ব্যাটিংয়ে নেমে বিপর্যয়ে পড়ে যায় পাকিস্তান। ইনিংসের তৃতীয় ওভারে শেলডন কটরেলের বলে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন ইমাম উল হক। ১৭ রানে প্রথম উইকেট হারায় পাকিস্তান। ১১ বলে মাত্র ২ রান করেন ইমাম। এরপর ফেরেন অন্য ওপেনার ফখর জামান। ১৬ বলে ২২ রান করে আন্দ্রে রাসেলের বলে বোল্ড হন তিনি। এখানেই শেষ নয় আন্দ্রে রাসেলের তাণ্ডব। তার বলে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান হারিস সোহেলও। তিনি করেন ৮ রান।

এসময় বাবর আজম দলের হাল ধরতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তিনিও ২২ রান করে শাই হোপের হাতে ক্যাচ দেন। প্রথম সারির ৪ উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পাকিস্তান। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে দলটি। জেসন হোল্ডারের এক ওভারেই আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে যান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ ও ইমাদ ওয়াসিম। ১২ বলে ৮ রান আসে সরফরাজের ব্যাটে, ইমাদ করেন মোটে ১ রান।

সেখান থেকে শেষ দিকে ওয়াহাব রিয়াজের ১১ বলে ১৮ রানের ইনিংসে কোনমতে ১০০ এর গুণ্ডি পার করে ১৯৯২ এর বিশ্বকাপজয়ীরা। শেষ ব্যাটসম্যান হিসাবে রিয়াজও থমাসের বলে বোল্ড হলে থেমে যায় পাকিস্তানের ইনিংস। ২১ ওভার ৪ বলে ১০৫ রানে অল আউট হয় পাকিস্তান।

D75A ztWwAEZY3F

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

পাকিস্তানঃ ১০৫/১০ (২১.৪ ওভার) ফাখার জামান ২২, বাবর আজম ২২, ওয়াহাব রিয়াজ ১৮; ওশানে থমাস ৪/২৭, জেসন হোল্ডার ৩/৪২, আন্দ্রে রাসেল ২/৪

উইন্ডিজঃ ১০৮/৩ (১৩.৪ ওভার) ক্রিস গেইল ৫০, নিকোলাস পুরান ৩৪*, শাই হোপ ১১; মোহাম্মদ আমির ৩/২৬

ফলাফলাঃ উইন্ডিজ ৭ উইকেটে জয়ী।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

চোট পেয়েছেন তামিম, শঙ্কা প্রথম ম্যাচে খেলা নিয়ে!

Read Next

পিটারসেনের চোখে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের চার সেমিফাইনালিস্ট

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share