ইনজামামের চমক জাগানো বিশ্বকাপ দল

received 1291186277713910
Vinkmag ad

১৯৯২ বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য ছিলেন, খেলেছেন ২০০৭ বিশ্বকাপ পর্যন্ত। এবার বিশ্বকাপে তার নির্বাচিত দলেই খেলবে পাকিস্তান। দেশটির সাবেক ক্রিকেটার ও বর্তমান নির্বাচক ইনজামাম উল হক দিয়েছেন পাকিস্তানের বিশ্বকাপ ইতিহাসের সেরা দলও। তার দেওয়া দলে ঠাঁই পেয়েছেন এমন কজন ক্রিকেটার, যাদের থাকায় উঠেছে নানা প্রশ্নও।

বিশ্বকাপের প্রথম আসর থেকেই অংশ গ্রহণ করে আসছে পাকিস্তান। ইমরান খানের নেতৃত্বে ৯২ তে চ্যাম্পিয়ন, বৈশ্বিক এ টুর্নামেন্টে শিরোপা ওই একবার জিতলেও সফলতা এসেছে আরও। ৭৯ থেকে ৮৭ টানা তিন আসরের সেমিফাইনালিস্ট, ৯২ তে চ্যাম্পিয়ন, ৯৯ তে রানার্স আপ, ২০১১ তে ফের সেমিফাইনাল।

এত সাফল্য এসেছে যাদের হাত ধরে তাদের নিয়েই একটি স্কোয়াড দিতে বলা হয় বর্তমান প্রধান নির্বাচক ইনজামাম উল হককে। নিজের দেওয়া স্কোয়াডে নাম নেই তার নিজেরই, হয়তো স্বচ্ছতার প্রশ্নে বাদ দিয়েছেন নিজেকে। তবে প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে দুটি জায়গা নিয়ে, যেখানে উইকেটরক্ষক কামরান আকমল ও কখনো বিশ্বকাপই না খেলা ওপেনার শারজিল খানের থাকাতেই চমকে গেছেন অনেকে।

kamran akmal imran nazir named in world t20 probables 5909

কামরান আকমলকে বিবেচনা করা হয় ক্রিকেট ইতিহাসেরই সবচেয়ে অবিশ্বস্ত উইকেট কিপার হিসেবে। খালি চোখে ভাবলে অনেকেই হয়তো বলবে যতটা ক্যাচ কামরান ধরেছেন,  ছেড়েছেন তার চাইতে বেশি। বাস্তবে হয়তো বিষয়টা অত খারাপ পর্যায়ে যায়নি তবে সহজ অনেক ক্যাচ, স্টাম্পিং মিস করে পাকিস্তানকে ম্যাচ থেকেই ছিটকে দিয়েছেন অনেকবার। এমন অনির্ভর গ্লাভসজোড়ায় বিশ্বকাপের মত মঞ্চে আস্থা রাখার কথা নয় কারোরই। ব্যাট হাতে কিছু রান যোগ করতে পারেন বলেই ওয়াসিম বারি, সেলিম আলতাফ, রশিদ লতিফ, মঈন খানদের পেছনে ফেলে আকমলই জায়গা পেয়েছেন বলে যুক্তি ইনজামামের।

তবে ওপেনার নির্বাচনে ইনজামাম দিয়েছেন আরও বড় চমক। নির্বাচন করতে দেওয়া হয়েছে পাকিস্তানের সর্বকালের সেরা স্কোয়াড, অথচ তিনি ওপেনার হিসেবে নিয়েছেন এমন একজনকে যিনি খেলেননি একটি বিশ্বকাপও। বিশ্বকাপের ২১ ম্যাচে ৫৩ এর বেশি গড়ে ৯১৫ রান করা সাঈদ আনোয়ারের সঙ্গী ১৯৭৯ বিশ্বকাপ খেলা মজিদ খান।

57852661 2165979386821771 5555987144557723648 n 1024x859

তবে তৃতীয় ওপেনার হিসেবে জায়গা পাওয়া শারজিল খানকে বলা যায় বড়সড় চমকই। দূর্নীতির দায়ে ৫ বছরের জন্য ক্রিকেট থেকেই নিষেধাজ্ঞায় আছেন বলে ইনজামামের সিদ্ধান্ত হয়েছে আরও বিতর্কিত। কোন বিশ্বকাপ না খেলা শারজিল ২৫ ওয়ানডেতে ৩২.৪৮ গড়ে ১ সেঞ্চুরি ৬ হাফসেঞ্চুরিতে করেছেন ৮১২ রান। এ দুজন ছাড়া স্কোয়াডে জায়গা পাওয়া অন্যদের নিয়ে অবশ্য নেই তেমন বিতর্ক।

ইনজামামের পাকিস্তানের সর্বকালের সেরা বিশ্বকাপ দলঃ শারজিল খান, সাঈদ আনোয়ার, মাজিদ খান, জহির আব্বাস, জাভেদ মিয়াঁদাদ, মোহাম্মদ ইউসুফ, কামরান আকমল, ইমরান খান, আবদুল কাদির, সাকলায়েন মুশতাক, ওয়াসিম আকরাম, ওয়াকার ইউনিস, শোয়েব আখতার।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

‘১২’ জুয়াড়িকে বিশ্বকাপের আগে আইসিসির হুঁশিয়ারি

Read Next

পাকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামছেন না সাকিব

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share