‘১২’ জুয়াড়িকে বিশ্বকাপের আগে আইসিসির হুঁশিয়ারি

Vinkmag ad

বর্তমানে ক্রিকেটের সবচেয়ে বেশি আলোচিত বিষয়ের একটি ম্যাচ ফিক্সিং। গত একযুগে এর সঙ্গে যুক্ত হয়ে জেলও খেটেছেন কয়েকজন তারকা ক্রিকেটার, ক্যারিয়ার শেষ হয়ে গিয়েছে অনেক ক্রিকেটারের। তবে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় বিশ্বকাপকে ঘিরে ফিক্সিংয়ের ব্যাপারে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে ক্রিকেটের সর্ব্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। ইংলিশ গণমাধ্যম দ্য টেলিগ্রাফের এক রিপোর্টে তুলে আনা হয়েছে, আইসিসি ১২ জন ম্যাচ ফিক্সারকে সাবধান করে দিয়েছে আইসিসি; তারা যেন বিশ্বকাপের সময় ইংল্যান্ডে আসতে না পারে।

GettyImages 1148612709

এবারের বিশ্বকাপ আসরে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে ১০ দল। কম দল হলেও আসরের পরিধি বড়। ফলে ম্যাচ ফিক্সিং থেকে শুরু করে নানা ধরনের দুর্নীতি হওয়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেয়া যায় না ক্রিকেটের সেরা এই আয়োজনে।

তবে এবারের বিশ্বকাপে ফিক্সিং ঢুকতে পারবে না বলেও বিশ্বাস করেন আকসু। ক্রিকেট জুয়ারিদের অবাধ বিচরণ ঠেকাতে এ বিশ্বকাপে অংশ নেওয়া দশ দেশের সঙ্গে থাকবে আইসিসি’র এন্টি করাপশন ইউনিটের (আকসুর) প্রতিনিধি। যারা নজর রাখবেন স্কোয়াডে থাকা ক্রিকেটার ও টিম ম্যানেজমেন্টের সদস্যদের উপর।

গত ১১টি বিশ্বকাপে অনেক অনিয়মের খবর পাওয়া গেছে। কিন্তু এবার আইসিসির এন্টি-করাপশন ইউনিট দুর্নীতি থেকে এই টুর্নামেন্টেকে শতভাগ নিরাপত্তা দিতে প্রস্তুত। যারা অনুশীলন ম্যাচ থেকে টুর্নামেন্ট শেষ হওয়া পর্যন্ত সবসময় দলের সঙ্গে থাকবেন, যাতে গড়াপেটা খেলার মধ্যে কোনো প্রভাব না ফেলতে পারে।

TELEMMGLPICT000171175929 trans NvBQzQNjv4BqNJjoeBT78QIaYdkJdEY4CnGTJFJS74MYhNY6w3GNbO8

আইসিসির দুর্নীতি দমন শাখার জেনারেল ম্যানেজার অ্যালেক্স মার্শাল বলেছেন,

‘আমি তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি চিঠি, ফোনের মাধ্যমে। যদি তাদের মধ্যে কাউকে দেখা যায় তাহলে তাদের বের (ইংল্যান্ড থেকে) করে দেয়া হবে। তাদের সব তথ্য এখানকার পুলিশকে আমরা জানিয়েছি। আমাদের কেউ যদি তাদের দেখতে পায় তাহলে মাঠ থেকে বেরিয়ে যেতে অনুরোধ করা হবে।’

60912449 2296199857082845 8444678072199806976 o

তিনি আরও বলেন,

 ‘এমন ডজনখানেক রয়েছেন, যাদের বিশ্বকাপে আসার আমন্ত্রণ নেই। যদি তাদের বাইরেও আরও কাউকে দেখা যায় তাহলে তাদেরও বেরিয়ে যেতে বলা হবে। বিশ্বজুড়ে এমন লোক আছে, তবে বেশিরভাগই রয়েছে উপমহাদেশ অঞ্চল থেকে।’

এসিইউ এর জেনারেল ম্যানেজার আলেক্স মার্শাল ইংল্যান্ডের ওভালে অনুষ্ঠিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেছেন, ‘প্রতিটি দলে আমাদের ইউনিট থেকে একজন কর্মকর্তা থাকলে খেলোয়াড় ও টিম ম্যানেজমেন্টের জন্য সুবিধাজনক। দলে কোনো অনিয়ম ঘটছে কি না, খেলোয়াড়রা দুর্নীতিগ্রস্ত হচ্ছে কি না এসব ব্যাপারে আমাদের কমিশন কার্যকরী ভূমিকা রাখবে।’

97 Desk

Read Previous

ইংল্যান্ডকে পরাজয়ের পথ দেখালো অস্ট্রেলিয়া

Read Next

ইনজামামের চমক জাগানো বিশ্বকাপ দল

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share