আবারো নাসির চমকে আবাহনীর পাশে গাজী

featured photo1 1 68
Vinkmag ad

ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলে দেশে ফেরার পর নাসির হোসেনের পারফরম্যান্সের গ্রাফ যেন আরও ঊর্ধ্বমুখী। গত ম্যাচে দুর্দান্ত সেঞ্চুরির পর আজকে ব্যাটিং-বোলিং দুই বিভাগেই রেখেছেন অবদান। তার অলরাউন্ড নৈপুণ্যেই প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবকে পাঁচ উইকেটে হারায় গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স। এই জয়ে ২২ পয়েন্ট নিয়ে আবাহনীর পাশে নিজেদের জায়গা করে নিয়েছে নাসির হোসেনের দল।

মঙ্গলবার বৃষ্টি হানা দেওয়ায় ম্যাচের দৈর্ঘ্য ৪৩ ওভার নির্ধারণ করা হয়েছিল। কিন্তু এরপরেও মাত্র চার বল খেলা হওয়ায় বুধবার ফতুল্লায় রিজার্ভ ডে তে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নামে প্রাইম ব্যাংক। আগের দিন (মঙ্গলবার) প্রথম বলেই গাজীর ওপেনার মেহেদী মারুফ শূন্য রানে সাজঘরে ফেরেন। আজকে শানাজ আহমেদ ও জাকির হাসান দিনের শুরুটা ভালোই করেন। দুইজন মিলে ৯০ রানের জুটি গড়েন। উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান শানাজ ৭৫ বলে ৫৪ রান করেন ও উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান জাকির অর্ধশতক থেকে মাত্র তিন রান দূরে আউট হোন। এই দুইজন ছাড়া প্রাইম ব্যাংকের আর কোনও ব্যাটসম্যানের থেকে তেমন রান আসেনি। চার উইকেটে ১৫০ রান পার করা প্রাইম ব্যাংকের শেষ ছয় উইকেট পড়েছে মাত্র ২৩ রানে। অধিনায়ক আসিফ আহমেদ ও তাইবুর পারভেজ দুই জনের ব্যাট থেকে আসে ২০ রান করে। খেই হারিয়ে ফেলে শেষ পর্যন্ত সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৭৩ রান তুলতে সক্ষম হয় প্রাইম ব্যাংক। গাজির হয়ে এদিন ভারতীয় অলরাউন্ডার গুরকিরাত সিং ও আবু হায়দার নেন তিনটি করে উইকেট। এছাড়া নাসির হোসেন শিকার করেন দুই উইকেট।

ছোট লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে দলীয় ২৬ রানে ওপেনার মুনিম শাহরিয়ারকে হারায় গাজী। এরপর এনামুল হক ও মমিনুল হক দলকে ভালো অবস্থানে নিয়ে যান। উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান এনামুল হক খেলেন ৫২ বলে ৪৫ রানের ইনিংস। এনামুলের বিদায়ের পর মমিনুল ব্যক্তিগত ৩৩ রান করে আউট হোন। দলীয় ১১৭ রানের মাথায় অভিজ্ঞ জহুরুল ইসলামকে প্যাভিলিয়নে পাঠান প্রাইম ব্যাংকের পেসার আলামিন হোসেন। দুই রানের মাথায় গুরকিরাত সিংকে হারিয়ে খানিকটা চাপে পড়ে গাজি। সেই চাপকে উপেক্ষা করে দলকে জিতিয়েই মাঠ ছাড়েন কাপ্তান নাসির। বোলিংয়ে দুই উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি ব্যাট হাতে খেলেন ৬৪ বলে ৬১ রানের দর্শনীয় ইনিংস। নাসিরের অপরাজিত ইনিংসের সুবাদে ৫ উইকেট হারিয়েই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় গাজী। ব্যাট-বলে দারুণ পারফরম্যান্সের স্বীকৃতি স্বরূপ ম্যাচসেরার পুরস্কার পান নাসির হোসেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব ১৭৩/১০ (৩৯.১)  জাকির ৪৭, শানাজ ৫৪

আবু হায়দার রনি ৩/৩২, গুরকিরাত ৩/২৭, নাসির ২/৪২

গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স  ১‌৭৭/৫ (৩৮.৪) এনামুল ৪৫, মুমিনুল ৩৩, নাসির ৬১*

নাহিদ ২/২৯, তাইবুর ১/৩৩

ফল: গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স ৫ উইকেটে জয়ী

ম্যান অব দ্য ম্যাচ: নাসির হোসেন

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

খেলতে হবে দল হিসেবেঃ সাকিব

Read Next

বোলিংয়ের সেরা দশে সাকিব-মাশরাফি

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share