‘বোলাররা আমাকে ভয় পেলেও ক্যামেরার সামনে ওরা স্বীকার করে না’

gayle
Vinkmag ad

ক্যারিয়ারের গোধূলি লগ্নে দাঁড়িয়ে গেইল। বিশ্বকাপের পরপরই অবসরে যাবেন ক্রিস গেইল। এর আগে শিরোপা ঘরে তোলার লক্ষ্যে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে মাঠে নামবেন তিনি। জামাইকার এই ক্রিকেটার যখন বাইশ গজে ব্যাট হাতে দাঁড়ায়, যেকোনো বোলার উন্মাদ হয়ে যায় কোন লাইনলেন্থে বল ছুঁড়ে মারবেন। প্রতিপক্ষরা কি আপনাকে ভয় পায়? অস্ট্রেলিয়ার একটি ক্রিকেট ওয়েবসাইটে দেওয়া সাক্ষাৎকারে গেইলের জবাব, ‘ক্যামেরার সামনে সকলে বলবে যে, আমাকে ভয় পায় না। ক্যামেরা সরিয়ে নিয়ে জিজ্ঞেস করুন। প্রত্যেকে বলবে, ওই তো আসল লোক। ভয়ঙ্কর।’

gayle24122018

ব্যাট হাতে হরহামেশাই তাণ্ডব চালান ৩৯ বছর বয়সী এই জ্যামাইকান ব্যাটসম্যান। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান মনে করেন, ক্রিকেটে তার প্রমাণ করার আর কিছু নেই। ১৯৯৯ সালে অভিষেক হওয়ার পর প্রায় দুই দশক ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছেন গেইল। ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় আসন্ন বিশ্বকাপ শেষেই এক দিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

এবার আইপিএলে কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের জার্সিতে ৪০.৮৩ গড়ে ৪৯০ রান সংগ্রহ করেছেন গেইল। ছয় মেরেছেন সর্বমোট ৩৪টি। আর আইপিএলের ইতিহাসে সর্বাধিক ৩২৬ ছক্কা হাকিয়েছেন ক্রিকেটের এই ‘ইউনিভার্সাল বস’। বিশ্বকাপে সেরা দেওয়ার ব্যাপারে তিনি আত্মবিশ্বাসী। গেইল বলেছেন,

‘আমি ছন্দেই আছি। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে সিরিজ আর তারপর আইপিএলটা খারাপ কাটেনি। ভাল দিক হল খেলার মধ্যেই রয়েছি। টুর্নামেন্ট শুরুর আগে কয়েকটা ওয়ার্ম আপ ম্যাচ খেলব। বিশ্বকাপ লম্বা টুর্নামেন্ট। মানসিকভাবে দৃঢ় থাকতে চাই।’

Chris Gayle

ক্যারিবিয়ান তারকা এবার জানালেন, বোলাররা তাঁকে বেশ ভয় পান। যদিও প্রকাশ্যে কেউই সেটা স্বীকার করেন না।

‘আপনারা এই ব্যাপারে তাদেরই জিজ্ঞাসা করতে পারেন! ক্যামেরার সামনে হয়ত তাঁরা বলবে আমাকে ভয় পায় না। কিন্তু আড়ালে নিয়ে জিজ্ঞাসা করুন, সবাই আমাকে ভয় পাওয়ার ব্যাপারটা স্বীকার করবে। তাঁরা এটাও বলবে, আমাকেই ভয় পাওয়া উচিত।’

chris gayle 640x424

বিশ্বকাপের আগে প্রতিপক্ষ বোলাদের হুমকি দিয়ে রাখলেন এই বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান। গেইল জানালেন এই বয়সেও তাকে এখনো ভয় পায় বোলররা,

‘তরুণ বয়সে এখনকার চেয়ে অনেক দ্রুতগতির ছিলাম। তবুও প্রতিপক্ষের মনে রাখা উচিত ইউনিভার্স বস কী করতে পারে! আমি নিশ্চিত এটা তাদের ভাবনায় আছে। তাঁরা সবসময় এটা ভাবছে, আমিই তাদের দেখা সবচেয়ে বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান।’

286206

যেকোনো ম্যাচেই ইনিংসের শুরুটা হয় পেসারদের হাতে। ওপেনিংয়ে নেমে পেসারদের বিপক্ষে লড়াইটা এখনো উপভোগ করেন গেইল,

‘আমি সবসময়ই ফাস্ট বোলারদের বিপক্ষে লড়াইটা উপভোগ করেছি, এখনো করছি। ব্যাটসম্যান হিসেবে এটা আমাকে বাড়তি অনুপ্রেরণা দেয়। চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে আমি সবসময় প্রস্তুত।’

97 Desk

Read Previous

দলের স্বার্থে সেরা সিদ্ধান্তই নিয়েছে ইংল্যান্ড

Read Next

জার্সি বিক্রি করতে না পেরে পুরনো ব্যবসায়ীদের প্রতিবাদ

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share