বাংলাদেশের ‘কোর গ্রুপ’ এর প্রশংসায় পঞ্চমুখ রমিজ রাজা

রমিজ

বিশ্বকাপের জন্য ১৫ সদস্যের দল ইতোমধ্যেই ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ। অভিজ্ঞতা সম্পন্ন এক শক্ত দলই ইংল্যান্ড ও ওয়েলসে মর্যাদার আসরে লড়াই করার জন্য পাঠাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। বাংলাদেশ দলের অন্যতম সেরা পজিটিভ দিক হচ্ছে অভিজ্ঞতায় টুইটম্বুর এক ‘কোর গ্রুপ’। সেই কোর গ্রুপের প্রশংসায় মেতেছেন পাকিস্তানের বিশ্বকাপ জয়ী দলের (১৯৯২) সদস্য ও জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার রমিজ রাজা।  

Ramiz Raja 768x576

রমিজ রাজা বাংলাদেশের কোর গ্রুপ সম্পর্কে বলেন, ‘বাংলাদেশের পজিটিভ দিক হলো বাংলাদেশের কোর গ্রুপ। যে গ্রুপ খুব ভালোভাবে একসাথে খেলছে দীর্ঘদিন ধরে। এই কোর গ্রুপে আছে মাশরাফি বিন মর্তুজা, মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল। এই কোর গ্রুপ খুব ভালো ভাবে খেলছে, পারফর্ম করছে, বাংলাদেশকে বাজে অবস্থা থেকে বের করে এনে জেতাচ্ছে।’

রমিজ রাজা বাংলাদেশের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার মূল্যায়ন করেন এভাবে- ‘মাশরাফি বিন মর্তুজা একজন অনবদ্য অধিনায়ক। ঠান্ডা মেজাজে ক্যাপ্টেন্সি করে থাকেন মাশরাফি। এবং কঠিন অবস্থায়, কঠিন পরিস্থিতিতে সঠিক সিদ্ধান্তটা নিয়ে থাকে।’ একটু মজার ছলে রমিজ বলেন, ‘এখন তো মাশরাফি সংসদ সদস্যও হয়েছেন। এখন যদি কেউ তাঁর কথা না শোনে তাহলে ‘কানুনি চাবুক’ ও চালাতে পারবেন।’

519A1880 1200x776 1
ফাইল ছবি

বাংলাদেশ দলের উইকেটরক্ষক মিস্টার ডিপেন্ডেবল মুশফিকুর রহিম সম্পর্কে রমিজ বলেন, ‘বাংলাদেশ দলে ট্যালেন্ট আছে অনেক। মুশফিকুর রহিম মিডল অর্ডারে দারুণ এক ব্যাটসম্যান। যখন পরিস্থিতি বাংলাদেশের জন্য খারাপ থাকে তখন দাঁড়িয়ে যান মুশফিক। কঠিন পরিস্থিতিতে তিনিও মাশরাফির মতো সঠিক সিদ্ধান্ত নেন তবে সেটা ব্যাট হাতে। ভালো জুটি গড়ে, ঘাবড়ে যায় না। কিপার হিসাবেও বেশ ভালো মুশফিক। কিপিংয়ের পয়েন্ট অফ ভিউ থেকে ক্যাপ্টেনকে ফিল্ড সেট আপ করাতেও সাহায্য করে থাকেন তিনি।’

সাকিব আল হাসান সম্পর্কে রমিজ বলেন, ‘সাকিব আল হাসান বিশ্বমানের অলরাউন্ডার। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তাঁর অনেক খেলার অভিজ্ঞতা আছে। বাংলাদেশ দলকে সে কঠিন পরিস্থিতি ও বড় মঞ্চে খুব বেশি সাহায্য করবে।’

272398
ফাইল ছবি

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ইংল্যান্ডের মাটিতে তামিম ইকবালের পরিসংখ্যান দেখেই তামিমকে আলাদা করেছেন রমিজ, ‘এরপর বাংলাদেশের আছে তামিম ইকবাল। বিশ্বমানের ওপেনার। ইংল্যান্ডে তামিমের রেকর্ড খুবই ভালো, কাউন্টি ক্রিকেট খেলার অভিজ্ঞতাও আছে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দুইটি টেস্ট সেঞ্চুরিও আছে ইংল্যান্ডের মাটিতে। ‘উইজডেন ক্রিকেটার অফ দ্যা ইয়ার’ ও মনোনীত হয়েছিলেন তামিম। সম্প্রতি বিপিএলের যে ফাইনাল হয়েছিল সেখানে দারুণ এক ইনিংস খেলেছিলেন, ১১ টা ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন। যদি আপনার দলে এরকম বিশ্বমানের ওপেনার থাকে তাহলে চাপ টা কম হয়ে যায় অনেক।’

Shihab Ahsan Khan

Shihab Ahsan Khan, Editorial Writer of Cricket97 & en.Cricket97

Read Previous

ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা হারলো সেমিতে, শিরোপা জিতল এমসিজে ডেয়ারডেভিলস

Read Next

বাংলাদেশ দলের বড় শক্তির জায়গা শক্তিশালী ‘টুয়েলভথ ম্যান’

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share