মোহামেডানকে লজ্জা দিয়ে জিতলো আবাহনী

match report 33
Vinkmag ad

আবাহনী-মোহামেডান দ্বৈরথ সবসময়ই আলোচনার কেন্দ্রে থাকে। আগের মতো জৌলুশ ঢাকার ক্লাব ক্রিকেটে না থাকলেও অনেকেরই চোখ থাকে আবাহনী-মোহামেডান ম্যাচে। তবে ডিপিএলের(ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ) সুপার লিগে প্রতিদ্বন্দ্বিতাহীন এক ম্যাচে মোহামেডানকে লজ্জা দিয়ে জিতেছে আবাহনী।

সাভারে বিকেএসপির ৩ নাম্বার গ্রাউন্ডে টসে জিতে ব্যাটিং করতে নামে শামসুর রহমানের নেতৃত্বাধীন মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। উদ্বোধনী জুটিতে শামসুর রহমান ও সৈকত আলী ৩২ রান যোগ করলেও আর কোন জুটি মোহামেডানের স্কোরবোর্ড বড় করার দায়িত্ব নিতে পারেনি। ভারতীয় মানান শর্মা, স্পিনার সাকলাইন সজীবের বোলিং তোপে ৩৩ ওভার ৪ বলে ১০০ রান করে অলআউট হয় মোহামেডান। মানান শর্মা ৪টি ও সাকলাইন সজীব নেন ৩টি উইকেট। এছাড়া আবু জায়েদ রাহি ২টি ও মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন ১টি উইকেট পান। মোহামেডান দলপতি শামসুর রহমানের ব্যাটে আসে সর্বোচ্চ ২৩ রান।

১০০ রান টপকে জেতে বেশি সময় নেননি আবাহনীর ব্যাটসম্যানরা। টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক আবাহনীর ওপেনার লিটন দাসের ব্যাট হেসেছে এদিনও। মোহামেডানের বোলারদের নাকানি চুবানি খাওয়ানো লিটন দাস আউট হবার আগে ২২ বলে ৪টি চার ও ৫টি ছয়ে করেন ৫০ রান। দলীয় ৬১ রানে লিটন ফিরে যাবার পর ৮০ রানের মাথায় ফেরেন মোহাম্মদ মিথুনও। শামসুর রহমান প্রথম ওভারেই নাজমুল হোসেন শান্ত ও আফিস হোসেন ধ্রুবকে সাজঘরে ফেরান। ৮০/১ থেকে চোখের পলকে ৯২/৫ হয়ে যায় আবাহনী। তাতে অবশ্য খেলার ফলাফলে কোন প্রভাব পড়েনি। ১০১ রানের সহজ লক্ষ্যে আবাহনী পৌছে যায় ৫ উইকেট ও ৩৪ ওভার ৩ বল হাতে রেখেই। সাদমান ইসলাম অপরাজিত থাকেন ২৪ রান করে।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

মোহামেডান ১০০/১০(৩৩.৪), শামসুর ২৩, মানান ২১/৪, সাকলাইন ২৪/৩

আবাহনী ১০৪/৫(১৫.৩), লিটন ৫০, সাদমান ২৪*

আবাহনী ৫ উইকেটে জয়ী।

ম্যাচসেরাঃ সাকলাইন সজীব(আবাহনী)

Shihab Ahsan Khan

Shihab Ahsan Khan, Editorial Writer- Cricket97

Read Previous

আরও বড় কিছু করে দেখাবে মুস্তাফিজঃ মাশরাফি

Read Next

বড় সংগ্রহের পথে বাংলাদেশ

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share