বিশ্বকাপে পাকিস্তানের অধিনায়ক সরফরাজই

আহমেদ
Vinkmag ad

২০১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে সরফরাজ আহমেদের কাঁধেই থাকছে পাকিস্তান দলের নেতৃত্বভার। এমনটিই নিশ্চিত করেছেন পিসিবি (পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড) চেয়ারম্যান এহসান মানি।

এহসান মানি লাহোরে আজ (৫ ফেব্রুয়ারি) বলেন, ‘আমি খুশি মনে নিশ্চিত করছি যে, সরফরাজ আহমেদই অন্তত বিশ্বকাপ পর্যন্ত পাকিস্তানের অধিনায়ক থাকবেন। আমি মনে মনে সবসময়ই সরফরাজের অধিনায়ক হওয়া নিয়ে পরিষ্কার ছিলাম। আমি তাঁর সাথে দলের বর্তমান অবস্থা, তাঁর ভবিষ্যত পরিকল্পনা নিয়ে কথা বলতে মুখিয়ে ছিলাম।’

‘পাকিস্তান ক্রিকেট দলের প্রতি সরফরাজ তাঁর দায়বদ্ধতার কথা জানিয়েছে। সে তাঁর অ্যাভেইলেবলিটি সম্পর্কে ও বিশ্বকাপে দলকে নেতৃত্ব দেবার আকাঙ্ক্ষার কথা জানিয়েছে।’

দিন কয়েক আগে এক পিসিবির মুখপাত্র ক্রিকবাজকে জানিয়েছিলেন, ‘আমরা কখনোই সরফরাজ আহমেদের অধিনায়কত্বের মেয়াদ নির্দিষ্ট করে দিইনি। আমরা কখনো বলিনি যে সে এক বা দুই বছরের জন্য অধিনায়ক হচ্ছে। পিসিবি সিরিজ টু সিরিজ ভিত্তিতে অধিনায়ক নির্বাচিত করে।’

তবে এহসান মানি শোনালেন ভিন্ন কথা। বরাবরই সরফরাজ আহমেদে ভরসা রেখেছেন পিসিবি চেয়ারম্যান।

5be512a3479d4
এহসান মানি

‘সরফরাজ আমাদের বিশ্বকাপ ভাবনাতে শুরু থেকেই ছিল। সে নিজেকে কৌশলী, নেতা ও পারফর্মার হিসাবে প্রমাণ করেছে। সে ২০১৭ সালে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে পাকিস্তান দলকে নেতৃত্ব দিয়েছে এবং ট্রফিও জিতিয়েছে। তাঁর অধিনায়কত্বেই টি-টোয়েন্টি র‍্যাংকিংয়ে পাকিস্তান শীর্ষে। বর্তমানে টেস্ট দলের ফর্ম বিবেচনা করে তাঁর অর্জন ও অবদানকে খাটো করা যাবে না।’

‘আমি আশাবাদী, সে মিকি আর্থার ও ইনজামাম উল হককে সাথে নিয়ে ভালো কাজ করা অব্যাহত রাখবে। এবং দলকে সম্ভাব্য সেরা অবস্থানে এনে বিশ্বকাপে শক্তিশালী পারফরম্যান্স উপহার দিবে।’

উল্লেখ্য, গেলবছরের সেপ্টেম্বরে এশিয়া কাপে পাকিস্তানের বাজে ফলাফলের পর সরফরাজ আহমেদের নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল। টুর্নামেন্ট জুড়েই মাঠে নেওয়া সরফরাজের সিদ্ধান্ত নিয়ে বিস্তর সমালোচনা হয়েছে। তার ব্যাটিং ফর্মও আশা জাগানিয়া নয়। আরব আমিরাতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ হারে পাকিস্তান। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজেও হার দেখে পাকিস্তান। নিজের দলের ফাস্ট বোলারদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেও সমালোচিত হন এই পাকিস্তান দলপতি।

736585 sarfraz ahmed afp
ফাইল ছবি

সম্প্রতি ম্যাচ চলাকালীন ব র্ণ বা দী মন্তব্য করে তো আইসিসির দ্বারা নিষিদ্ধই হয়েছিলেন চার সীমিত ওভারের ম্যাচে। সরফরাজ নিষিদ্ধ ছিলেন বলে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বাকি থাকা ওয়ানডেতে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার শোয়েব মালিক।

Shihab Ahsan Khan

Shihab Ahsan Khan, Editorial Writer- Cricket97

Read Previous

তাসকিনের বদলে নিউজিল্যান্ডে যাচ্ছেন এবাদত, শফিউল

Read Next

সায়মন ডুলের চোখে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের ‘সেরা ১৫’

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share