এবার অ্যাশেজ বর্জনের হুমকি ওয়ার্নারের

featured photo1 1 15
Vinkmag ad

ওয়ার্নার টেস্ট এর চিত্র ফলাফল

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ) আর অজি ক্রিকেটারদের হুমকি, পাল্টা হুমকি থামছেই না। এবার চুক্তির ব্যাপারে নিজের অবস্থানের কথা জানালেন অস্ট্রেলিয়ান উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ডেভিড ওয়ার্নার। সোজা বলে দিয়েছেন বোর্ড চুক্তি না মানলে অ্যাশেজে অংশগ্রহণ করবেনা অজি ক্রিকেটারেরা। 

সিএ নির্বাহী জেমস সাদারল্যান্ড এক চিঠিতে পরিষ্কার বলে দিয়েছেন বোর্ডের চুক্তি যদি না মেনে নেয় ক্রিকেটারেরা তবে জুনের ৩০ তারিখের পর থেকে কোন ধরনের বেতন বা ভাতা বোর্ড থেকে দেয়া হবেনা তাদের। তবে বোর্ডের এমন হুমকিতেও নিজেদের অবস্থান থেকে এক চুলও নড়েননি ক্রিকেটারেরা।

প্রথমে মিচেল স্টার্ক এরপর ওয়াটসন আর এবার মুখ খুললেন ডেভিড ওয়ার্নার। অ্যাশেজে মাঠে নামবেনা কোন ক্রিকেটারই এমন শক্ত হুমকি দিয়ে ওয়ার্নার জানান, ‘চুক্তি নিয়ে যদি এমন গড়িমসি বোর্ড করতেই থাকে তবে আমার মনে হয় অ্যাশেজে খেলানোর মত কোন ক্রিকেটারই পাবেনা বোর্ড। তবে আমি আশা পোষণ করছি এমন কিছুই হবেনা, বোর্ড আমাদের সাথে সমাঝোতায় আসবে। আমি দেখতে চাইনা গ্রীষ্মকালে অস্ট্রেলিয়ার মাঠে ক্রিকেট গড়াচ্ছেনা। খেলোয়াড়রা খেলছেনা দলের হয়ে। ক্রিকেটার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাথে সমঝোতার দায়িত্ব সিএ’র। তারাই নিয়ন্ত্রণ করবে সব।’

গত প্রায় ২০ বছর ধরে চলে আসা একটি ধারার পরিবর্তনের পর থেকেই অজি বোর্ড আর ক্রিকেটারদের শুরু হয়েছে টানাপোড়েনের। এতদিন ধরে জাতীয় দল এবং ঘরোয়া ক্রিকেটের সব খেলোয়াড়রা বেতনের পাশাপাশি বোর্ডের রাজস্ব থেকেও একটা অংশ পেতো। তবে নতুন চুক্তিতে শুধু আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছেন এমন ক্রিকেটারদেরই রাজস্বের ভাগ দেবে বোর্ড এমনটা জানানোর পরই ঘরোয়া ক্রিকেটারদের অপমান করা হচ্ছে এমন ইস্যুতে ভীষণ ক্ষেপেছেন অজি ক্রিকেটাররা।

অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার্স অ্যাসোসিয়েশন (এসিএ) এ চুক্তিকে ‘না’ বলে দিয়েছে সপ্তাহ দুয়েক আগেই। ওয়ার্নারের এ হুমকিতে বেশ ভাবনায়ই পড়ে যাওয়ার কথা বোর্ডের। এবারের অ্যাশেজ অনুষ্ঠিত হবে অস্ট্রেলিয়ায়। আর চুক্তির ব্যাপারে সব ধরনের ক্রিকেটাররা একমত। ফলে সমঝোতায় না আসলে কোন ক্রিকেটারই পাচ্ছেনা ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া।

বোর্ড থেকে বেতন না আসা বা বেকার করে দেয়ার হুমকিতে ওয়ার্নার তো ভয় পাননিই উল্টো আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের অধিনায়ক জানিয়েছেন বোর্ড অমন কিছু করলে নিজেদের পরিকল্পনাটা। ‘এমন যদি হয়ই তবে আমাদেরও তো ক্রিকেট খেলার উপায় বের করতে হবে। ক্যারিবিয়ান লিগ, ইংল্যান্ডে টি-টোয়েন্টি হয়তোবা কেউ কেউ খেলবে। দেশের হয়ে সবাইই বেশী বেশী খেলতে চায়। কিন্তু যদি বোর্ড খেলতেই না দেয় তাহলে অন্য রাস্তা বের করতেই হবেই।’

তৃতীয় পক্ষের মধ্যস্ততা প্রস্তাব করে সিএ কে ক’দিন আগেই চিঠি দিয়েছে এসিএ। এখন পর্যন্ত বোর্ড আর ক্রিকেটারদের মধ্যে যেরকম যুদ্ধংদেহী মনোভাব তাতে মনে হচ্ছে সেটাই হতে পারে একমাত্র সমাধানের রাস্তা।

 

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

প্রাইম ব্যাংকের শ্বাসরুদ্ধকর ১ রানের জয়

Read Next

উদ্বোধনীতে ৩২০ রানের জুটি !

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share