ইতিহাস গড়ে জিতলো পাকিস্তান

match report 10
Vinkmag ad

এর আগে পাকিস্তান কখনো ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জে টেস্ট সিরিজ জেতেনি। হানিফ মোহাম্মদ, জাভেদ মিয়াদাদ, ইমরান খান, ইনজামাম উল হক, ওয়াসিম আকরামদের না পারা কাজটাই করে দেখালো মিসবাহ বাহিনী। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে তাদের ঘরের মাটিতে টেস্ট সিরিজে হারিয়ে দিয়ে ইউনিস খান, মিসবাহ উল হককে বিদায়ী উপহার দিলো সতীর্থরা।

ডমিনিকায় চতুর্থ দিন শেষেই বোঝা যাচ্ছিলো ম্যাচের ভবিষ্যৎ। তবে পঞ্চম দিনে পাঁচ নাম্বারে ব্যাটিং করতে নামা রস্টন চেজ সমীকরণ বদলে দেবার চেষ্টা করেছেন দিনভর। ১৮ তম ওভারের পঞ্চম বলে শিমরন হেটমেয়ার আউট হলে ক্রিজে আসেন রস্টন চেজ। তারপর ৩৫৯ মিনিট নির্বিঘ্নে কাটিয়েছেন ২২ গজে। ম্যাচের আর এক ওভার বাকি থাকতে যখন শ্যানোন গ্যাব্রিয়েল ইয়াসির শাহের পঞ্চম শিকারে পরিণত হন, তখন নন স্ট্রাইক প্রান্তে ২৩৯ বলে ১০১ রান করে অপরাজিত থাকা রস্টন চেজের চোখেমুখে ম্যাচ বাঁচিয়ে মাঠ ছাড়তে না পারার হতাশা। নিজের দায়িত্বশীল ইনিংসের জন্যে যদিও ম্যাচসেরার পুরষ্কারটা তিনিই পেয়েছেন। তবুও পরাজিত দলে থাকতে নিশ্চয়ই তার ভালো লাগেনি।

পাকিস্তানের বোলিংয়ের নেতৃত্বে ছিলেন যথারীতি সিরিজজুড়ে দারুণ বল করা ইয়াসির শাহ। প্রথম ইনিংসে ৩ উইকেট নেবার পর দ্বিতীয় ইনিংসে ইয়াসির শাহ দেখা পান ক্যারিয়ারে ১১তম বারের মতো পাঁচ উইকেটের। সিরিজে ২৫ উইকেট নিয়ে সিরিজসেরার পুরষ্কার তার ভাগ্যেই জুটেছে। তাছাড়া অভিষিক্ত হাসান আলী ৩ উইকেট নিয়ে পাকিস্তানের জয়ে ভূমিকা রাখেন।

ইতিহাস গড়ার দিনেও আনন্দে ভাসতে পারছে না পাকিস্তানের ভক্ত সমর্থকেরা। ইউনিস খান, মিসবাহ উল হকরা যে আর কখনো ব্যাট হাতে পাকিস্তানের জন্য সুনাম বয়ে আনার কাজটি করবেন না!

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

পাকিস্তান ৩৭৬ ও ১৭৪/৮(ডিক্লেয়ার)

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২৪৭ ও ২০২/১০(৯৬), রস্টন চেজ ১০১*, ইয়াসির শাহ ৯২/৫

পাকিস্তান ১০১ রানে জয়ী।

ম্যাচসেরাঃ রস্টন চেজ(ওয়েস্ট ইন্ডিজ)

পাকিস্তান ২-১ ব্যাবধানে সিরিজ জয়ী।

সিরিজসেরাঃ ইয়াসির শাহ(পাকিস্তান)

Shihab Ahsan Khan

Shihab Ahsan Khan, Editorial Writer- Cricket97

Read Previous

নিয়াল ও’ব্রায়েনের শতকেও জয় পেলো না আয়ারল্যান্ড

Read Next

ইনজুরি থেকে ফিরে স্টেইন খেলতে চান বাংলাদেশের বিপক্ষে

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share