দুই বছর পর সুযোগ পেয়েই পাঁচ উইকেট

featured photo1 9
Vinkmag ad

বাংলাদেশের ঘরোয়া লিগে প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলার সুযোগ পাওয়া যায় এনসিএল (ন্যাশনাল ক্রিকেট লিগ) ও বিসিএলে (বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগ)। গেলোবছর এই দুই টুর্নামেন্টের কোনটাতেই খেলার সুযোগ পাননি জুবায়ের হোসেন লিখন। দুই বছর পর দেশের ঘরোয়া লিগে প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেললেন এই লেগ স্পিনার। সুযোগ পেয়েই করেছেন বাজিমাত, নিয়েছেন পাঁচ উইকেট।

ক্রিকেট খেলুড়ে দলগুলো এখন বাজিমাত করছে রিস্ট/ লেগ স্পিনার দিয়ে। আফগানিস্তানের রাশিদ খান, ভারতের যুজবেন্দ্র চাহাল ও কুলদ্বীপ যাদব, পাকিস্তানের ইয়াসির শাহ ও শাদাব খান, অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডাম জাম্পা, দক্ষিণ আফ্রিকার ইমরান তাহির, নিউজিল্যান্ডের ইশ সোধি, ইংল্যান্ডের আদিল রশিদ, শ্রীলঙ্কার লাক্সান সান্দাকান, উইন্ডিজদের স্যামুয়েল বদ্রি কিংবা জিম্বাবুয়ের গ্রায়েম ক্রেমার। লেগ স্পিনারের অভাব নেই কোন দলেরই।

f56fdfeabc2657e2be53f7dddfc29bd5 5aefd8da4d8d9

শুধু বাংলাদেশই যেনো কোন কারণে এই লেগ স্পিন শিল্প আয়ত্ব করতে পারা কাউকে খুঁজে পাচ্ছেনা। খুঁজে পেলেও তাঁদেরকে লম্বা সময়ের জন্য পাচ্ছে না। লেগ স্পিন ডিপার্টমেন্টে বড়সড় এক আক্ষেপের নাম হয়ে আছেন জুবায়ের হোসেন লিখন।

বয়সটা মাত্র ২৩ বছর, তবুও লিখন বাতিলের খাতায়। ৬ টেস্টে ১৬, ৩ ওয়ানডেতে ৪ ও ১ টি-টোয়েন্টিতে ২ উইকেট শিকার করা জুবায়ের হোসেন লিখন যে বিসিবির নির্বাচকদের রাডারে ওভাবে নেই তার প্রমাণ মেলে বিসিএল/ এনসিএলে তার না খেলা। সবশেষ আয়ারল্যান্ড ‘এ’ দলের বিপক্ষে অবশ্য খেলেছিলেন জুবায়ের। ঐ ম্যাচে ৩ উইকেট নেওয়া লিখন এর আগে পরে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে পেয়েছিলেন লম্বা বিরতি। যে বিরতি অবশ্যই চাননি তিনি।

জন্ম জামালপুরে, সেই হিসাবে ঢাকা মেট্রোর খেলোয়াড় তিনি। তবে এবার এনসিএলে খেলছেন চট্টগ্রাম ডিভিশনের হয়ে। এনসিএলের ২০ তম আসর মাঠে গড়ানোর দিনেই চট্টগ্রামের আস্থার প্রতিদান দিয়েছেন লিখন। ১৬ ওভার বল করে ৬১ রান খরচে তুলে নিয়েছেন ৫ উইকেট। ২১ তম প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলতে থাকা লিখনের এটি দ্বিতীয়বারের মতো ৫ উইকেট শিকার। ২০১৪ সালে চট্টগ্রামে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৯৬ রান খরচে নিয়েছিলেন ৫ উইকেট বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে।

218337

ফতুল্লায় জুবায়ের হোসেন লিখনের ৫ উইকেট পাওয়ার দিনে ১ম ইনিংসে ২৩৮ রানে অলআউট হয়েছে ঢাকা ডিভিশন। জবাবে দিনশেষে ভালো অবস্থানে নেই চট্টগ্রামও। ২৫ রান স্কোরবোর্ডে তুলতেই তাঁরা হারিয়ে বসেছে ইরফান শুক্কুর ও মুমিনুল হকের গুরুত্বপূর্ণ দুই উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর: (১ম দিন শেষে)

ঢাকা ২৩৮/১০ (৮১) (মজিদ ৩, রনি ৫৯, সাইফ ৩৪, শুভাগত ২৩, তাইবুর ৬৩, নাদিফ ১০, মোশাররফ ২২, শরিফ ৪, মাহবুবুল ০, নাজমুল ২, শাহাদাত ১*; সাইফ ০/৩৬, হাসান ২/৩৬, ইরফান ০/১৭, নাঈম ৩/৭৪, জুবায়ের ৫/৬১)

চট্টগ্রাম ২৫/২ (৭), (সাদিকুর ২৩*, শুক্কুর ০, মুমিনুল ০, তাসামুল ২*; শাহাদাত ২/১৮, শরিফ ০/৭)

Shihab Ahsan Khan

Shihab Ahsan Khan, Editorial Writer- Cricket97

Read Previous

তুষারের শতক ছাপিয়ে ব্যাটে-বলে দাপট রাজশাহীর

Read Next

টেস্ট আর টি-টোয়েন্টির নেতৃত্ব দেবেন মাহমুদউল্লাহ!

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share