দুই ব্যাটিং স্তম্ভের বিদায়ী টেস্টে জয় দেখছে পাকিস্তান

match report 8
Vinkmag ad

ইতিহাস গড়তে মিসবাহ উল হকের দলের প্রয়োজন আর ৯ উইকেট, হাতে আছে পুরো একটা দিন। ওয়েস্ট ইন্ডিজে যে আগে কখনোই টেস্ট সিরিজ জেতেনি পাকিস্তান। ইউনিস খান ও মিসবাহ উল হককে বিদায়ী উপহার হিসেবে জয়ই দিতে চাইবেন পাকিস্তানী বোলাররা।

ডমিনিকায় মিডল অর্ডারে রোস্টন চেজ আর লেজের দিকের ব্যাটসম্যানদের ধৈর্য্যশীল ব্যাটিংয়ে ৫ উইকেটে ২১৮ রান নিয়েই তৃতীয় দিন শেষ করেছিলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তবে চতুর্থ দিনে সেই ধৈর্য্যের পরীক্ষায় উতরে যেতে পারেননি ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটসম্যানরা। আগের দিন ২০ রানে অপরাজিত থাকা উইকেটরক্ষক ডরউইচকে কোন রান না করতে দিয়েই বোল্ড করেন মোহাম্মদ আমির। তারপরেই পাদপ্রদীপের আলো নিজের দিকে টেনে নেন মোহাম্মদ আব্বাস। একে একে চেজ,বিশু,জোসেফ ও গ্যাব্রিয়েলকে ফিরিয়ে দিয়ে পাকিস্তানকে ১২৯ রানের লীড উপহার দেন তিনি। ওয়েস্ট ইন্ডিজ কাপ্তান জেসন হোল্ডার একপ্রান্তে অপরাজিত থাকেন ৩০ রান করে।

১২৯ রানের লীড পেয়েও স্বস্তিতে থাকতে পারেনি পাকিস্তান। ১ম ইনিংসে শতরান করা আজহার আলী আর অর্ধশতক পাওয়া বাবর আজম ফিরে যান দ্রুতই। ইনিংস মেরামতের কাজ ইউনিস খান,শান মাসুদরা করতে চাইলেও বেশিক্ষণ পারেননি। নিজেদের শেষ টেস্টে শেষবারের মতো ব্যাট করা মিসবাহ উল হক ও ইউনিস খান চা বিরতির আগেই ফিরে যান কাছাকাছি সময়ে। চা বিরতির পরে সরফরাজ আহমেদ ও আসাদ শফিকও দ্রুত ফিরে গেলে ২৫০ রানের লীডও মনে হচ্ছিলো দুরের পথ। তবে সবাইকে অবাক করে পাকিস্তান লীড পায় ৩০৩ রানের! কৃতিত্ব অবশ্যই অল্পবিস্তর ব্যাট করতে পারা দুই বোলার ইয়াসির শাহ ও মোহাম্মদ আমিরের। দুইজন মিলে অষ্টম উইকেটে যোগ করে মূল্যবান ৬১ রান। আমির ২৭ রান করে আউট হলেও ৩৮ রান করে অপরাজিত থাকেন ইয়াসির শাহ। লীড ৩০০ পার করে ১৭৪/৮ এ ডিক্লেয়ার করে পাকিস্তান।

শেষ বিকেলে ৭ম ওভারে দলীয় ৭ রানের মাথায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ হারিয়ে বসে কিরন পাওয়েলের উইকেট। ঘাতকের নাম ঐ ইয়াসির শাহই। ইতিহাস গড়তে শেষদিন ইয়াসির শাহের ঘূর্ণিজাদুর দিকেই তাকিয়ে থাকবে পাকিস্তান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (চতুর্থ দিন শেষে): 

পাকিস্তানঃ ৩৭৬/১০ (প্রথম ইনিংস) ও ১৭৪/৮ডিক্লেয়ার(দ্বিতীয় ইনিংস), ইয়াসির ৩৮*, ইউনিস ৩৫।

ওয়েস্ট ইন্ডিজঃ ২৪৭/১০ (প্রথম ইনিংস) ও ৭/১(দ্বিতীয় ইনিংস), ইয়াসির ২/১

 

Shihab Ahsan Khan

Shihab Ahsan Khan, Editorial Writer- Cricket97

Read Previous

জিততে জিততে হেরে গেলো কোলকাতা

Read Next

নয় বছর পর মুখোমুখি হচ্ছে আয়ারল্যান্ড-নিউজিল্যান্ড

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share