‘ফিজ’ ম্যাজিকে ফাইনালের স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখল বাংলাদেশ

featured photo1 49
Vinkmag ad

হারলেই ফাইনাল খেলার স্বপ্ন বিসর্জন দিতে হবে, এমন সমীকরণ নিয়ে আফগানিস্তানের বিপক্ষে খেলতে নামে বাংলাদেশ দল। ব্যাট হাতে ভুলে যাবার মতো শুরুর পর ইমরুল-মাহমুদউল্লাহ’র ব্যাটে চড়ে লড়াকু পুঁজি পায় মাশরাফি বিন মর্তুজার দল। আর তাতেই আটকে দেওয়া গেছে আফগানদের, বেঁচে আছে টাইগারদের ফাইনাল খেলার স্বপ্নও।

২৫০ রানের লক্ষ্য নিয়ে খেলতে নামা আফগানরা পঞ্চম ওভারে এসে হারায় ইহসানউল্লাহ’র উইকেট। ৮ রান করে মুস্তাফিজের বলে শান্তকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি। রহমত শাহও উইকেটে এসে টিকতে পারেননি বেশীক্ষণ। দারুণ ক্ষিপ্রতায় সরাসরি থ্রোতে তাঁকে রানআউট করেন সাকিব আল হাসান।

দ্রুত দুই উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়া আফগানরা ম্যাচে ফেরে হাশমতউল্লাহ শাহিদি ও ওপেনার মোহাম্মদ শেহজাদের ৬৩ রানের জুটিতে। মিঠুন লোপ্পা এক ক্যাচ ফেলে দিলে জীবন পেয়েছিলেন শেহজাদ। সেই শেহজাদকে ৫৩ রানে বোল্ড করে থামান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। চতুর্থ উইকেটে অধিনায়ক আজগর আফগানের সঙ্গে ৭৮ রানের জুটি গড়ে ম্যাচটি নিজেদের দিকে হেলিয়ে নেন হাশমতউল্লাহ শাহিদি। নিজের শেষ স্পেলে বল করতে এসে ৩৯ রান করা আজগরকে ফেরান মাশরাফি। বিপজ্জনক হতে থাকা হাশমতউল্লাহকেও ফেরান টাইগার দলপতি। আউট হবার আগে ৯৯ বলে ৫ চারে ৭১ রান করেন তিনি।

 

এরপর মোহাম্মদ নবি, সামিউল্লাহ শেনওয়ারি চেষ্টা চালিয়েছেন বটে। তবে মুস্তাফিজের করা শেষ ওভারে ৮ দরকার থাকলে আফগানরা নিতে পারে ৪ রান। বাংলাদেশ জেতে ৩ রানের ব্যবধানে।

এর আগে টসে জিতে আগে ব্যাট করতে নামে বাংলাদেশ। পঞ্চম ওভারে এসে ব্যক্তিগত ৬ রানে নিজের উইকেট বিলিয়ে আসেন আরো এক দফা সুযোগ পাওয়া নাজমুল হোসেন শান্ত। ২ বল পরে মুজিবের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে ফেরেন মোহাম্মদ মিঠুনও। তবে এদিন দেখা মেলে ভিন্ন এক লিটনের। স্ট্রাইক রোটেট করে মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে বাঁধেন ৬৩ রানের জুটি। ৪৩ বলে ৩ চারে ক্যারিয়ার সেরা ৪১ রান করে আউট হন লিটন দাস।

280564

লিটন আউট হবার ওভারেই কোন রান না করে বাজেভাবে রানআউট হন সাকিব আল হাসান। এক ওভার বিরতি দিয়ে দারুণ খেলতে থাকা মুশফিকও (৩৩) ফেরেন রান আউট হয়ে। এরপর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সঙ্গে হাল ধরেন খুলনা থেকে উড়ে আসা ইমরুল কায়েস। ৬ষ্ঠ উইকেটে দুজন মিলে গড়েন রেকর্ড ১২৮ রানের জুটি। ৮১ বলে ৩ চার ও ২ ছয়ে ৭৪ রান করে আউট হন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তবে আউট হননি ইমরুল কায়েস। শেষপর্যন্ত উইকেটে থেকে দলকে নিয়ে যান ২৪৯ রান পর্যন্ত। নিজে অপরাজিত থাকেন ৭২ রান করে।

Shihab Ahsan Khan

Shihab Ahsan Khan, Editorial Writer- Cricket97

Read Previous

রিয়াদ-ইমরুলে বাংলাদেশের লড়াকু স্কোর

Read Next

মুস্তাফিজকে ১০ ওভার না করানোর পেছনে মাশরাফির ব্যাখ্যা

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share