আসছে এশিয়া কাপ; প্রতিপক্ষ নামা (শ্রীলংকা)

2018 07 06 17 26 51
Vinkmag ad

চলতি মাসের ১৫ তারিখ থেকে মাঠে গড়াতে যাচ্ছে এশিয়ার ক্রিকেটের সর্বোচ্চ আসর “এশিয়া কাপ”। বিশ্ব ক্রিকেটের অন্যতম এক আকর্ষণীয় ও জমজমাট ক্রিকেট লড়াই নামে এই টুর্ণামেন্টের খ্যাতি প্রতিটি ক্রিকেট ভক্তের কাছেই অত্যন্ত সুপরিচিত। এবারের আসরে বাংলাদেশের পাশাপাশি আরো ৫টি দল লড়বে এশিয়ার ক্রিকেট শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে। বাংলাদেশের সেই প্রতিপক্ষদের শক্তিমত্তা, দুর্বলতা এবং খুঁটিনাটি আরো অনেক দিক নিয়েই ‘ক্রিকেট৯৭’ এর ধারাবাহিক আয়োজনে আজকে থাকছে পালাবদলের ভেতর দিয়ে যাওয়া টুর্ণামেন্টের অন্যতম ডার্ক হর্স- শ্রীলংকা।

z p16 Sri Lanka loo

শ্রীলংকার ক্রিকেট একটা বির্বতনের ভেতর দিয়ে যাচ্ছে। একসঙ্গে অনেক সিনিয়র খেলোয়াড়ের অবসরের পর নতুন ক্রিকেটারদের নিয়ে আস্তে আস্তে গড়ে তোলা হচ্ছে এই শ্রীলংকা দলটি। বর্তমান দলটির হাতে গোনা কয়েকজন ছাড়া ১০০টি ওয়ানডে খেলার অভিজ্ঞতা তেমন কারো নেই। তরুণ ক্রিকেটারদের কাঁধে তাই অনেক বড় দায়িত্ব থাকবে আসন্ন এশিয়া কাপেও। দলকে সঠিক দিক-নির্দেশনার জন্য রাষ্ট্রীয় হস্তক্ষেপে এ বছরের শুরুতে দলটির কোচ করা হয়েছে বাংলাদেশের সাবেক কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহেকে।

তিনি দায়িত্ব নেয়ার পরপরই বাংলাদেশে এসে শ্রীলংকা জিতেছে ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজটি। সর্বশেষ দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজেও ভাল খেলেছে দলটি। তবে সিরিজ জিততে পারেনি। উল্লেখ্য, শ্রীলংকা সর্বশেষ দ্বিপাক্ষিক কোন সিরিজ জিতেছে ২০১৬ সালের মাঝামাঝি সময়ে। সুতরাং বলাই যায়, বেশ ক্রান্তিকালই পার করছে শ্রীলংকান ক্রিকেট।

এই এশিয়া কাপে দলটির মূল ভরসা হয়ে থাকবেন অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস, অলরাউন্ডার থিসারা পেরেরা আর এশিয়া কাপের স্কোয়াডে চমক হয়ে ফেরা লাসিথ মালিঙ্গা। সাথে দুই কুশল- মেন্ডিস ও পেরেরা, দীনেশ চান্ডিমাল, উপুল থারাঙ্গা, উদীয়মান পেসার দুশমন্থ চামিরা, আকিলা ধনঞ্জয়- এদের মিলিয়ে মোটামুটি ভাল একটা স্কোয়াডই দাঁড় করিয়েছে শ্রীলংকা এই এশিয়া কাপের জন্য। চলুন দেখে আসি কিছু শ্রীলংকান ক্রিকেটারের সাম্প্রতিক ফর্ম আর পারফর্মেন্সের দিকে, যাদের দিকে নজর থাকবে সবার।

919896070
কুশল মেন্ডিস: ফাইল ফটো

কুশল মেন্ডিসঃ শ্রীলংকার টপ অর্ডারের অন্যতম ভরসার নাম এই কুশল মেন্ডিস। টেকনিক্যালি বেশ ভাল একজন ব্যাটসম্যান এই ডানহাতি। নিখুঁত স্ট্রোক খেলতে পারার সক্ষমতা রয়েছে তার। খেলতে পারেন উইকেটের চারপাশেই। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে খেলা ভারতের বিপক্ষে ৮৯ রানের সেই ম্যাচ জয়ী ইনিংসের কারণেই বলতে গেলে স্পট-লাইটে এসেছেন এই তরুণ ব্যাটসম্যান। ২০১৮ সালে খেলেছেন ১০টি ওয়ানডে। তাতে ৯ ইনিংসে ব্যাট করে রান করেছেন ১৬৯, গড় ১৮.৭৮। ৮৯.৮৯ স্ট্রাইক রেট। ফিফটি বা সেঞ্চুরী পাননি একটিও। এই পরিসংখ্যান কুশল মেন্ডিসের সক্ষমতাকে প্রকাশ করছে না মোটেও। সুতরাং বলাই যায়, নিজের নামের প্রতি সুবিচার করতেই এই এশিয়া কাপে ভাল করতে মরিয়া থাকবেন তিনি।

218117.3
কুশল পেরেরা; ফাইল ফটো

কুশল পেরেরাঃ ঝড়ো ব্যাটিং দিয়ে এরই মধ্যে দলে নিজের অপরিহার্যতা প্রমাণ করেছেন এই বাঁহাতি টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। ব্যাটিং স্টাইলে শ্রীলংকান কিংবদন্তী জয়াসুরিয়ার সাথে মিলের কারণে অভিষেকের আগে থেকেই বেশ আলোচনায় ছিলেন তিনি। স্পিনের বিপক্ষে বেশ শক্তিশালী তিনি। এই বছর ব্যাট হাতেও মোটামুটি ফর্মে আছেন তিনি। ৮ ইনিংসে রান করেছেন ৩০৯, ৩৮.৬৩ গড়ে। স্ট্রাইক রেট ছিল ১০৪.৭৫। কোন সেঞ্চুরী না পেলেও ফিফটি পেয়েছেন ৩টি। এমন পারফর্মেন্স আসন্ন এশিয়া কাপেও ধরে রাখতে চাইবেন তিনি।

Mathews
অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস; ফাইল ফটো

অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুসঃ এই অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার বর্তমান শ্রীলংকা দলটির অধিনায়ক। বেশ অনেক বছর ধরেই নীল-হলুদ জার্সি গায়ে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করছেন তিনি। দলের কজন অভিজ্ঞ খেলোয়াড়ের ভেতর তিনি একজন। এই এশিয়া কাপে সাফল্য পেতেও তার দিকেই তাকিয়ে থাকবে তার দল। যদিও ইনজুরি বেশ ভোগাচ্ছে তাকে। এই বছর মিস করেছেন বেশ কয়েকটি ম্যাচ। তবে যে কটি ম্যাচ খেলেছেন, তাতে ফর্মের ছাপ সুস্পষ্ট। এই বছরে ৬ ম্যাচের ৬ ইনিংসে ব্যাট হাতে ২২ গজে পা রেখেছেন তিনি। তাতে ৬৯.২৫ গড়ে রান তুলেছেন মোট ২৭৭। স্ট্রাইক রেট ছিল ৮০.২৯। সেঞ্চুরী পাননি, ফিফটি ছিল ২টি। ইনজুরির কারণে বল হাতে তাকে এ বছর তেমন একটা দেখা যায়নি। গতবছর অর্থাৎ ২০১৭ সালে ৪.২১ ইকোনমি রেট বজায় রেখে ৪০.৬৭ গড়ে নিয়েছেন ৩টি উইকেট। এশিয়া কাপে ব্যাট-বল দুটি হাতেই জ্বলে উঠবেন তিনি, এমনটাই কামনা থাকবে গোটা শ্রীলংকার।

Chandimal loses d
দীনেশ চান্ডিমাল; ফাইল ফটো

দীনেশ চান্ডিমালঃ শ্রীলংকা দলকে বেশ কয়েকটি ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছেন এই ডানহাতি উইকেট-কীপার ব্যাটসম্যান। শ্রীলংকান ক্রিকেটের পরবর্তী সুপারস্টার ভাবা হতো তাকে। প্রতিভার কমতি নেই, কিন্তু সেভাবে জ্বলে উঠতে পারেননি তিনি। বেশ ভাল টেকনিকের সাথে তার রয়েছে উইকেটের চারপাশে শট খেলার ক্ষমতা। তার প্রতিভা অনুযায়ী পারফর্ম করতে পেরেছেন খুব কমই। এ বছরে তিনি খেলেছেন ৫টি ওয়ানডে। তার ৪ ইনিংসে ব্যাটিং করে রান করেছেন মোট ১৪৫, গড় ৪৮.৩৩। বর্তমান আধুনিক ক্রিকেটের সাথে বেশ বেমানানই বলতে হবে তার স্ট্রাইক রেটকে- ৬৬.৮২। ফিফটি বা সেঞ্চুরী পাননি একটিও। শুধু এই এশিয়া কাপে নয়, তার ক্যারিয়ারের পরবর্তী সময়ে তার প্রতিভার পূর্ণ স্ফুরণ ঘটুক, এমন চাওয়া সবার।

192027
থিসারা পেরেরা; ফাইল ফটো

থিসারা পেরেরাঃ এই শ্রীলংকা দলের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বা মূল্যবান খেলোয়াড় বলা যেতে পারে এই থিসারা পেরেরাকে। ব্যাট হাতে কিংবা বল, দুটি হাতেই তিনি বদলে তিনি পারেন ম্যাচের চেহারা। কার্যকর মিডিয়াম পেস বোলিং আর বাঁহাতে করা ঝড়ো ব্যাটিং দিয়ে তিনি গোটা ক্রিকেট বিশ্বেই এক পরিচিত নাম। তার কাছে তাই শ্রীলংকা দলের প্রত্যাশাও থাকবে অনেক। ২০১৮ সালে খেলা ১০টি মায়াচের ৯ ইনিংসে ব্যাট করে তিনি সংগ্রহ করেছেন ২৮২ রান, গড় ৪০.২৯। স্ট্রাইক রেট ১৩৩.৬৫। পেয়েছেন ২টি ফিফটি। বল হাতে উইকেট নিয়েছেন ১৮টি, ইকোনমি রেট ৫.৫৪, সেরা বোলিং ফিগার ৪/৩৩। এই পরিসংখ্যানেই বোঝা যাচ্ছে শ্রীলংকা দলটির জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ একজন খেলোয়াড় তিনি।

Suranga Lakmal bowling form in 2018
সুরাঙ্গা লাকমাল; ফাইল ফটো

সুরাঙ্গা লাকমালঃ অনেক বছর ধরেই শ্রীলংকা দলে নিয়মিত মুখ এই সুরাঙ্গা লাকমাল। তার ডানহাতি পেস আরব আমিরাতের উইকেটে হতে পারে বেশ কার্যকর। আউটসুইং আর রিভার্স সুইং করাতে পারেন তিনি যা হতে পারে যেকোন দলের জন্য হুমকি। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে দলকে দিয়েছেন নেতৃত্বও। ২০১৮ সালে ১০ ম্যাচ খেলে নিয়েছেন ১০ উইকেট, ইকোনমি ৫.৫৬, গড় ৪০.৬০। সেরা বোলিং ফিগার ৩/২১। শ্রীলংকা দলটি এই এশিয়া কাপে তার কাছ থেকে এমন ভাল পারফর্মেন্সই প্রত্যাশা করবে।

sri lankan bowler dushmantha chameera celebrates the wicket of indian batsman yuvraj singh 14550994798021
দুশমন্থ চামিরা; ফাইল ফটো

দুশমন্থ চামিরাঃ শ্রীলংকান পেস অ্যাটাকে নতুন সংযোজন এই ডানহাতি পেস বোলার। বেশ ভাল গতির সাথে করতে পারেন বাউন্সার, ইয়র্কার কিংবা স্লোয়ার। উদীয়মান এই পেস সেনসেশনকে নিয়ে অনেক প্রত্যাশা শ্রীলংকানদের। এই এশিয়া কাপে তিনি হতে পারেন অধিনায়ক ম্যাথুসের ট্রা ম্পকার্ড। এ বছর ৩টি ওয়ানডে খেলে উইকেট পেয়েছেন ৪টি, ইকোনমি রেট ছিল মাত্র ৩.২২। তার কাছে থেকে এমন পারফর্মেন্সই করছে শ্রীলংকা এই এশিয়া কাপে।

malinga e1498911308242
লাসিথ মালিঙ্গা; ফাইল ফটো

লাসিথ মালিঙ্গাঃ এই নামটির সাথে নতুন করে পরিচয় করিয়া দেয়ার কিছুই নেই। মালিঙ্গা নামটির ভয়াবহতা সম্পর্কে গোটা ক্রিকেট বিশ্বই বেশ ভালমতোই পরিচিত। বয়স বাড়ার কারণে ফিটনেসের সমস্যার কারণে দলের বাইরে থাকলেও এই এশিয়া কাপে শ্রীলংকা মালিঙ্গাতেই ভরসা রাখছে। ১০ মাস পরের বিশ্বকাপ দলে জায়গা পাকা করতে মালিঙ্গাও চাইবেন বল হাতে দারুণ কিছু করতে। ২০১৮ সালে কোন ম্যাচ না খেললেও তিনি যে ভয়ংকরই থাকবেন, তা নিয়ে দ্বিমত থাকার সম্ভাবনা কম। ২০১৭ সালে ১০ উইকেট পেয়েছিলেন তিনি, ইকোনমি ছিল ৬.০০। পুরোনো মালিঙ্গার ফিরে আসার প্রার্থনাই তাই এই এশিয়া কাপে থাকবে গোটা শ্রীলংকা দলের।

এশিয়া কাপের শ্রীলংকা দলঃ অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস (অধিনায়ক), কুশল পেরেরা, কুশল মেন্ডিস, উপুল থারাঙ্গা, দিনেশ চান্দিমাল, ধানুশকা গুনাথিলাকা, থিসারা পেরেরা, দাসুন শানাকা, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, আকিলা ধনাঞ্জয়া, দিলরুয়ান পেরেরা, আমিলা আপোন্সো, কাসুন রাজিথা, সুরাঙ্গা লাকমল, দুশমন্থ চামিরা ও লাসিথ মালিঙ্গা।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ভারত হারল, ইংল্যান্ড জিতল সিরিজ

Read Next

ব্যাট হাতে রিয়াদের ঝড়, সেন্ট কিটসের জয়

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share