সাদমানের শতক আর হোমের পাঁচ উইকেটে উড়ে গেলো প্রাইম ব্যাংক

featured photo1 3
Vinkmag ad

IMG 0397

টপঅর্ডারের দারুণ ব্যাটিং আর শুভাগত হোমের পাঁচ উইকেটের দিনে প্রাইম ব্যাংককে গুড়িয়েই দিলো ঢাকা আবাহনী। আবাহনীর হয়ে এদিন শতরানের দেখা পেয়েছেন সাদমান ইসলাম। শুভাগতের পাঁচ উইকেটে প্রাইম ব্যাংক করতে পারেনি দুশো রানও। তাই ১০৭ রানের বিশাল জয় নিয়েই মাঠ ছেড়েছে আবাহনী লিমিটেড। 

আবাহনীর হয়ে এদিন বিকেএসপির তিন নাম্বার মাঠে রানের দেখা পেয়েছেন প্রথম তিন ব্যাটসম্যানই। আর উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান সাদমান দেখা পেয়েছেন শতকের। ১০০ বলে ১০৩ রান করে বিদায় নেয়ার আগে সাদমানের ব্যাট থেকে এসেছে ৯টি চার আর ৩টি ছয়। আরেক উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান লিটন দাস করেছেন ৬৩ বলে ৬৫ রান, ৩ ছয় আর ৪ চার হাঁকিয়ে। ওয়ান ডাউনে নামা সাইফ হাসানও দেখা পেয়েছেন অর্ধশতকের।

যদিও পুরো পঞ্চাশ ওভার খেলা হয়নি আবাহনীর। চার বলে আগেই সব উইকেট হারিয়ে ফেললেও স্কোরকার্ড ততক্ষণে বেশ স্বাস্থ্যবান ঢাকার ঐতিহ্যবাহী এই ক্লাবের। প্রাইম ব্যাংকের হয়ে তিনটি করে উইকেট নেন আলামিন হোসেন এবং আরিফুল হক। প্রাইম ব্যাংকের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ৩০৬ রানের।

জবাব দিতে নেমে শুভাগতের বোলিং তোপে দাঁড়াতেই পারেনি প্রাইম ব্যাংক। নির্ধারিত ওভারের পাঁচ ওভার আগেই সাজঘরে ফিরে যাওয়া প্রাইম ব্যাংকের সংগ্রহ ছিল ১৯৮। ৪৭ রান খরচায় আবাহনী অলরাউন্ডার শুভাগত হোম শিকার করেন পাঁচ প্রাইম ব্যাংক ব্যাটসম্যানকে। প্রাইম ব্যাংকের হয়ে একাই লড়ে যাওয়া সালমান অপরাজিত থাকেন ৬০ রানে।

শুভাগত না সাদমান, কে হবে ম্যাচ সেরা? এমন এক পরিস্থিতিতে নির্বাচকরা বেছে নেন সাদমানকেই। সাদমান ইসলামকেই ঘোষণা করা হয় ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ হিসেবে।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ডঃ

আবাহনী লিমিটেডঃ ৩০৫/১০ (৪৯.২ ওভার) সাদমান ইসলাম ১০৩, লিটন কুমার দাস ৬৫। আল আমিন ৩/৪৭, আরিফুল হক ৩/৫৮

প্রাইম ব্যাংকঃ ১৯৮/১০ (৪৪.৫ ওভার) সালমান ৬০*। শুভাগত হোম ৫/৪৭

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

বোলারদের নৈপুণ্যে রূপগঞ্জের জয়

Read Next

প্রস্তুতি ম্যাচে ইমরুল-মিরাজদের বিপক্ষে হারলো রিয়াদ-শফিউলরা

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share