‘হ্যাটট্রিকের চেয়ে ম্যাচ জেতা বেশি গুরুত্বপূর্ণ’

received 1891807454223723
Vinkmag ad

শেষ ওভারে প্রতিপক্ষের জয়ের জন্য প্রয়োজন ১৩ রান আর মাশরাফির প্রয়োজন ছিল প্রতিপক্ষকে এই রান করতে না দেওয়া। শেষ ওভারের চ্যালেঞ্জে জয় হয়েছে মাশরাফির। ৪ বলে তুলে নিয়েছিলেন ৪ উইকেট, যা বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে প্রথম। এই সাফল্যের পিছনে কাজ করেছে কাটার, সংবাদ সম্মেলনে সেই গল্পই বলে গেলেন আবাহনীর দলনায়ক মাশরাফি।

received 1891807404223728

এদিন ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে অগ্রণী ব্যাংকের বিপক্ষে আবাহনীর জয় ১১ রানের। বলা যায় একা মাশরাফির কাছে ম্যাচ হেরেছে আগ্রণী ব্যাংক। হ্যাট্রিক করেছেন মাশরাফি, চার বলে চার উইকেট নিয়েছেন মাশরাফি, ৪৪ রান দিয়ে ৬ উইকেট নিয়েছেন মাশরাফি, দল জিতিয়েছেন মাশরাফি, ম্যান অফ দ্যা ম্যাচও হয়েছেন তিনি। পুরো ম্যাচটা যেন মাশরাফিময়।

বলহাতে শুরুর সেই টগবগে মাশরাফিকে দেখেছে ফতুল্লায় উপস্থিত সবাই। নিজের প্রধান শক্তি বলের সুইংয়ের যথার্থ ব্যবহার করেছে আজ, পুরনো বলে কার্যকর কাটারে কুপোকাত ব্যাটসম্যানেরা। তাইতো মাশরাফির উচ্ছ্বাস এখানেই বলও তার কথা শুনছে। সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, “আমার জন্য নতুন বলে শুরুটা ভালো হওয়া গুরুত্বপূর্ণ। উইকেট না পাই, বোলিং ভালো হওয়াটা গুরুত্বপূর্ণ। পুরানো বলে আমার শক্তি যে কাটার, আমি আজকেও তার চেষ্টা করেছি। শেষের চারটা উইকেটই নিয়েছি কাটারে।”

“হ্যাটট্রিক তো করেছি, সত্যি কথা বলতে ওই অনুভূতিটা নেই। ম্যাচ জিততে পেরেছি সেটাই ভালো লাগছে। এটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। এমনিতেই আমাদের দলে পেস বোলিংয়ে কিছুটা ঘাটতি আছে। গত ম্যাচটা আমরা এই কারণেই হেরেছিলাম। আজকে আমরা বোলিংয়ের জন্য হেরে যাচ্ছিলাম। এবার জিততে পেরে ভালো লাগছে।”          

এই ম্যাচের আগেই ডিপিএলের এবারে আসরে সেরা উইকেট শিকারির তালিকায় ছিলেন এক নম্বরে। এবার বাড়িয়ে নিলেন দূরত্ব। যদিও আজ প্রথম স্পেলে কোন উইকেটের দেখা পাননি। ৬ ওভারের ২২ রান দিয়েছিলেন তিনি। দ্বিতীয় স্পেলের প্রথম ওভারে ফেরান সেঞ্চুরিয়ান শাহরিয়ার নাফীসকে। তার পরেই শুরু হয়ে যায় তার ম্যাজিক। তার বোলিং নিয়ে বলতে গিয়ে তিনি জানান, “প্রতিপক্ষ যেই থাকুক আমি সব সময় আমার শক্তির জায়গা থেকেই বোলিং করি। আমি কাটারই করছিলাম। দুই একটা হয়তো ক্রস সিমে করছি। ইয়র্কার করার চেষ্টা করিনি। রাজ্জাকের বিপক্ষে একটা করেছি, চার খেয়েছি। আমি মিড অফ উপরে রেখে কাটার করে বোলিং করেছি। ওই সময় ওর উইকেটটা খুব প্রয়োজন ছিল। উইকেটটা নেওয়ার জন্যই বলটা করেছি।”

“এভাবে বোলিং করায় অনেক চাপ থাকে। ধরেন, থার্ডম্যান উপরে রেখেছেন। কিন্তু কানায় লেগে চার হয়ে গেল, এতে চাপ বেড়ে যাবে। এসব চিন্তা কিন্তু আসে। এসব ক্ষেত্রে ভালো বোলিং করলেও হয় না, ভাগ্যটা পক্ষে আসতে হয়। কেননা, যে কোনো সময় কানায় লেগে চার হয়ে যেতে পারে। তখন কিছু করার থাকে না।”

এবারের লিগে মাশরাফিকে অনেক বেশি গোছান মনে হচ্ছে। সবকিছু হচ্ছে পরিকল্পনা অনুযায়ী। তার পরিকল্পনার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, “লিগের আগেই আমি পরিকল্পনা করেছিলাম, জাতীয় দলের জন্য প্রস্তুতিটা ঠিকভাবে করার জন্য এটা আমার জন্য দারুণ সুযোগ। সবচেয়ে বড় কথা, এটা আমার অনুশীলনের জন্য দারুণ সুযোগ। অন্যরা হয়তো টেস্ট খেলছে, টি-টোয়েন্টি খেলছে, আমি হয়তো পারছি না। এই ১৬টা ম্যাচ আমার কাজে লাগানোর খুব ইচ্ছে ছিল। সুস্থ থাকলে হয়তো সব ম্যাচ খেলতে পারব।”

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

খর্বশক্তির ভারতকে জব্দ করল শ্রীলঙ্কা

Read Next

টেইলরের অতিমানবীয় ব্যাটিংয়ে রানের পাহাড় ডিঙালো নিউজিল্যান্ড

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share