শরীফের হ্যাট্রিকে উড়ে গেল গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স

shorif
Vinkmag ad

জাতীয় দলের জার্সি তুলে রেখেছেন অনেক আগে, ঘরোয়ালীগ খেলছেন অনেকটা মনের জোরে। তার সাথে শুরু করাদের মধ্যে অনেকেই ঘরোয়ালিগও ছেড়ে দিয়েছেন। টুকটাক ধারাবাহিতা দেখা যায় যেকোন টুর্নামেন্টেই। বলা হচ্ছে মোহাম্মদ শরীফের কথা, ঢাকা প্রিমিয়ারলিগে খেলছেন লিজেন্ড অফ রুপগঞ্জের হয়ে। আজ বিকেএসপিতে তার ক্যারিয়ার সেরা বোলিং ও ভারতীয় রসুল পারভেজের অলরাউন্ডার নৈপুন্যে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স কে ৫ উইকেটে হারায় তার দল লিজেন্ড অফ রুপগঞ্জ।

243075.3 4

আজকের ম্যাচে শরীফ তুলে নিয়েছেন হ্যাট্রিকসহ ৬ উইকেট। টুর্নামেন্টে এটি ২য় হ্যাট্রিক, আগের হ্যাট্রিকটি করেছেন লিজেন্ড অফ রুপগঞ্জেরই আসিফ হাসান।

বৃষ্টির কারণে ৩৩ ওভারে নেমে আসা ম্যাচে আগে ব্যাট করে গাজী গ্রুপস ৩২.৪ ওভারে অল আউট হওয়ার আগে তোলে ১৯০ রান। জবাবে ৫ বল আর ৫ উইকেট হাতে রেখেই জয় পায় লিজেন্ড অফ রুপগঞ্জ।

শুরুতে ব্যাট করতে নামা গাজী মোহাম্মদ শহীদ ও শরীফের বোলিং তোপে বিপর্যয়ে পড়ে, ৭৪ রান তুলতেই হারিয়ে ফেলে ৪ উইকেট। ইমরুল কায়েস ও মনোজ তিওয়ারি ২২ রান করে করলেও মুমিনুল হককে খালি হাতেই ফেরান মোহাম্মদ শহীদ। দলের এমন পরিস্থিতি থেকে একাই টেনে নেন নাদিফ চৌধুরী।

জাকির আলী অনিককে নিয়ে ৬৬ রানের জুটি গড়েন। ৩৭ রান করে অনিক ফিরে গেলেও নাদিফ ফেরেন ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ৭৫ রান করে। মোহাম্মদ শরীফের করা ৩৩ তম ওভারের ২য় বল থেকে টানা তিন বলে তিন উইকেট নিয়ে গাজীর শেষ তিন উইকেট ও নিজের হ্যাট্রিক তুলে নেন মোহাম্মদ শরীফ। এরমধ্যে ছিলো নাদিফের উইকেটটিও, ওই ওভারের ২য় শিকার হওয়ার আগে নাদিফ করেন ৬১ বলে ২ চার ও ৫ ছক্কায় ৭৫ রান। ৬.৪ ওভারে ৩৩ রান দিয়ে ৬ উইকেট নেন শরীফ, এছাড়া শহীদ তিনটি ও পারভেজ রসুল একটি উইকেট নেন।

১৯০ রান তাড়ায় শুরুতেই উইকেট হারায় রুপগঞ্জ। ৭ রানে আব্দুল নাইম ও ৩৪ রানে আব্দুল মজিদ আউট হলেও নাঈম ইসলামের ৩৯, মুশফিকুর রহিমের ২২ রানের সুবাধে বিপদ সামলে উঠে রুপগঞ্জ। ৮৬ রানে ৪ উইকেট হারানো রুপগঞ্জকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যায় তুষার ইমরান ও পারভেজ রসুলের ১০২ রানের জুটি। জয় থেকে মাত্র ৩ রান দূরে রেখে তুষার ৩৮ রান করে ফিরলেও রসুল ফেরেন দলকে জিতিয়েই। ৫৭ বলে ৫ চার ও ২ ছক্কায় ৬১ রানে অপরাজিত থাকেন পারভেজ রসুল। গাজীর নাঈম হাসান তিনটি, আবু হায়দার ও মেহেদী হাসান একটি করে উইকেট নেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স: ৩২.৪ ওভারে ১৯০ (মামুন ১০, ইমরুল ২২, মুমিনুল ০, তিওয়ারি ২২, নাদিফ ৭৫, জাকের ৩৭, মেহেদি ৫, আবু হায়দার ৭, রাজিবুল ৫, নাঈম ০, রুহেল ০; শহীদ ৩/৩২, রসুল ১/৪২, নাঈম ০/৮, শরীফ ৬/৩৩, ০/২৭, মোশাররফ ০/৪৩)।

লেজেন্ডস অব রূপগঞ্জ: ৩২.১ ওভারে ১৯১/৫ (মজিদ ২৩, মোহাম্মদ নাইম ০, নাঈম ইসলাম ৩৯, মুশফিক ২২, তুষার ৩৮, রসুল ৬১*, মিলন ০*; আবু হায়দার ১/৩২, রুহেল ০/২৩, মেহেদি ১/২৭, রাজিবুল ০/৩৯, মুমিনুল ০/১৪, নাইম হাসান ৩/৩৮, তিওয়ারি ০/১৩)।

ফল: লেজেন্ডস অব রূপগঞ্জ ৫ উইকেটে জয়ী
ম্যান অব দা ম্যাচ: মোহাম্মদ শরীফ

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

বাংলাদেশ দলের দেখভাল নিজেই করতে চান পাপন

Read Next

‘ম্যানেজমেন্ট ওর বোলিং নিয়ে সন্তুষ্ট নয়’

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share