নিদাহাস ট্রফিতে ইমরুলকে ফেরানোয় নান্নুর ব্যাখ্যা

Vinkmag ad

আসছে ত্রিদেশীয় সিরিজ নিদাহাস ট্রফির জন্য আজ (সোমবার) ১৬ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। আঙুলের ইনজুরিতে কারণে দীর্ঘদিন পরে দলে ফিরেছেন সাকিব। তাসকিন আহমেদ, মেহেদি হাসান মিরাজ, নুরুল হাসান সোহানদের সাথে দলে আবার ডাক পেয়েছে ইমরুল কায়েসও। দলে সবচেয়ে বড় চমক হয়ত ইমরুলের এই ফরম্যাটে আবার ফেরাটাই। সেটির কারণ ব্যাখ্যা করেছেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু।

26695038 10154917417745194 1310241789 o

ক্রিকেটের এই সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে বাংলাদেশের পরিসংখ্যা খুব একটা সুখকর না। সেখানে ইমরুলের এমন ব্যাটিং কতটা চলনসই সেই প্রশ্ন থেকেই যায়! টি-টোয়েন্টিতে ইমরুল খেলেছে ১৪টি ম্যাচ, যা বাংলাদেশের প্রেক্ষাপট বিবেচনাতে এই ফরম্যাট নেহাত কম নয়। এই ১৪ ম্যাচে তার ব্যাটিং গড় ৯.১৫, ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ৩৬ রান। স্ট্রাইক রেট’টাও নব্বইয়ের নিচে। রেকর্ড দেখে বোঝা মুশকিল টপ অর্ডার নাকি লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যান তিনি।

এমন বিবর্ণ রেকর্ডের পরেও কেন ইমরুলকে দলে রাখা? এমন প্রশ্নের জবাবে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু জানান, ‘ইমরুল কায়েসর দলে অন্তর্ভুক্তি তৃতীয় ওপেনার হিসেবে। আমাদের চাওয়া, যারা ফাস্ট বোলিংয়ের বিপক্ষে ভালো ব্যাটিং করতে পারে, এমন একজনকে রাখতে। শ্রীলঙ্কার কন্ডিশনে পেসারদের আধিক্য থাকবে। এখানে আপনারা দেখেছেন শ্রীলঙ্কা পেসারদের নিয়ে খেলেছে। ভারতও অনেক পেসার নিয়ে খেলে। ওই সব চিন্তা করেই তৃতীয় ওপেনার হিসেবে ওকে (ইমরুল কায়েস) দলে রাখা।’

উপমহাদেশীয় উইকেট বরাবরি স্পিন সহায়ক থাকে, সাথে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাট’টাতে বেশি আধিক্য থাকে ব্যাটসম্যানদের। তার পরেও কেন ইমরুলকে রাখা? তাছাড়াও ইমরুলের চেয়ে ভালো ফাস্ট বল খেলে, এমন ওপেনার কি দেশে আর নেই?

এমন প্রশ্নের উত্তরে ইমরুলেই সমর্থন রেখে নান্নু বলেন, ‘অবশ্যই আছে। আমরা অভিজ্ঞতাকে একটা কারণেই মূল্যায়ন করেছি, যেহেতু ঘরের মাঠে আমাদের শ্রীলঙ্কা সাথে সিরিজটা খুব খারাপ গেছে। এখন যদি সে এই অভিজ্ঞতাটা ওখানে যেয়ে কাজে লাগাতে পার!’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

হেড কোচের দায়িত্ব পেয়েছে ওয়ালস

Read Next

বাংলাদেশ দলের দেখভাল নিজেই করতে চান পাপন

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share