মাশরাফি কৃতিত্বে মোহামেডানকে হারালো আবাহনী

featured photo1 76
Vinkmag ad

দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আবাহনী-মোহামেডানের ম্যাচের আগের দিন (রবিবার) আবাহনীর ক্রিকেটার মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত জানিয়েছিলেন প্রতিপক্ষ দলের নাম নিয়ে ভাবনা নেই তার দলের। জাতীয় দলের এই অলরাউন্ডার যে খুব একটা মন্দ বলেনি তা বোঝা গেল ম্যাচ শেষেই। নিজে সাফল্য না পেলেও ঐতিহ্যের লড়াইতে জিতেছে তার দল। এদিন আলরাউন্ডার মাশরাফির কল্যাণে মোহামেডানকে ১১২ রানে হারিয়ে লিগে নিজেদের টানা ষষ্ঠ জয় তুলে নিলো আবাহনী লিমিটেড।

28056225 1598222646928193 2697662111101283308 n

ডিপিএলের ছয় নাম্বার রাউন্ডে আজ মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সকালে টসে জিতে প্রতিপক্ষ আবাহনী’কে আগে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানান সাকিবের ইনজুরিতে মোহামেডানের দায়িত্ব পাওয়া অধিনায়ক শামসুর রহমান। আবাহনীর হয়ে ইনিংস শুরু করতে আসেন দুই ব্যাটসম্যান এনামুল হক বিজয় ও সাইফ হাসান।

দলীয় ১৪ রানে ব্যক্তিগত ২ রানে থাকা সাইফ ফিরে গেলে নাজমুল হোসেন শান্তর সাথে ৭০ রানের জুটি বাঁধেন এনামুল, শান্ত ২৬ রানে আউট হয়ে যাওয়ার পর লিস্ট-এ ক্যারিয়ারে নিজের ১৭ নাম্বার অর্ধশতক তুলে নিয়ে ৬৩ রানে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন বিজয়ও।

এরপর মিঠুন ও নাসিরের চতুর্থ উইকেট জুটি থেকে আসে আরো ৬৪ রান, ৪৭ রানে থাকা মিঠুন রান-আউটে কাটা পড়লে ভাঙ্গে এই জুটি। মিঠুন না পারলেও এদিন নিজের অর্ধশতক’টা ঠিকই তুলে নিয়েছেন নাসির, ফিরেছেন দলীয় সর্বোচ্চ ৬৭ রান করে। এরপর শেষ দিকে মাশরাফির ২৬ রানের উপর ভর করে অল-আউট হওয়ার আগে ২৫৯ রানের সংগ্রহ পায় আবাহনী।

২৬০ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই মাশরাফির শিকারে পরিণত হয়ে জনি তালুকদার ও শামসুর রহমানের উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে সাদাকালোরা। সেখান থেকে রনি তালুকদার (৩৫) ও ইরফান শুক্কুরের (৪০) ব্যাটে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা চালালেও এই দুই ব্যাটসম্যান আউট হয়ে গেলে দলীয় স্কোর এক’শোর কোটা পেরুতেই চার উইকেট হারিয়ে বসে মতিঝিলের এই দলটা।

এর ঠিক ২১ রান পরেই রাকিবুল হাসান ২৮ রান করে বিদায় নিলে হার একপ্রকার নিশ্চিতই হয়ে যায় মোহামেডানের। তারপর সাদাকালোদের বাকি ব্যাটসম্যানরা আসাযাওয়ার মিছিলে যোগ দিলে মাত্র ১৪৭ রানেই থামে মোহামেডানের ইনিংস। ফলে ১১২ রানের বিশাল জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে আবাহনী লিমিটেড।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

আবাহনী লিমিটেডঃ ২৫৯/১০ (৪৯.৪ বল) নাসির হোসেন ৬৭, এনামুল হক বিজয় ৬৩, মোহাম্মদ মিঠুন ৪৭, মোহাম্মদ আজিম ৩/২৬, এনামুল হক ১/২৪, বিপুল শার্মা ১/২৯

মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবঃ ১৪৭/১০ (৩০.৪ ওভার) ইরফান শুক্কুর ৪০, রনি তালুকদার ৩৫, রাকিবুল হাসান ২৮, মেহেদি হাসান মিরাজ ৩/২৮, মাশরাফি বিন মর্ত্তুজা ৩/৩৭, মনপ্রীত গোনি ২/২৫

ফলাফলঃ আবাহনী লিমিটেড ১১২ রানে জয়ী

ম্যাচসেরাঃ এনামুল হক বিজয় (আবাহনী লিমিটেড)

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

নিদাহাস ট্রফিতে সাকিবসহ ফিরেছে আরো চার জন

Read Next

হেড কোচের দায়িত্ব পেয়েছে ওয়ালস

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share