গাজীর জয়ে ব্যাট হাতে উজ্জ্বল ইমরুল

featured photo1 58
Vinkmag ad

সময়টা খুব একটা ভাল যাচ্ছে না ডিপিএলের বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের। ঢাকা লিগের এবারের আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচটা অগ্রণী ব্যাংকের সাথে হারলেও দ্বিতীয় ম্যাচ জিতে ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত দিয়েছিল কোচ সালাউদ্দিনের শিষ্যরা। লাভ হয়নি তাতে, লিগের তৃতীয় ও চতুর্থ রাউন্ডেও সেই হতাশার পুনরাবৃত্তি! আজ পঞ্চম রাউন্ডে এসে দেবব্রতর সেঞ্চুরিকে ছাপিয়ে গুরলেরাতের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে ব্রাদার্সকে ২ উইকেটে হারিয়ে আবারো জয়ে ফিরলো গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স। ফিফটি করেছেন ইমরুল কায়েস।

এদিন বিকেএসপি (বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা পরিষদ) এর তিন নাম্বার মাঠে সকালে টসে জিতে ব্রাদার্সকে আগে ব্যাটিংয়ে পাঠায় গাজী অধিনায়ক ইমরুল কায়েস। দলীয় ৬ রানে মিজানুরের উইকেট হারিয়ে ইনিংস শুরু হয় ব্রাদার্সের। এরপর দলীয় ৩৫ রানে তিনে নামা মাইশুকুরও ফিরে গেলে ইনিংস মেরামতের কাজ করেন ওপেনার জুনায়েদ সিদ্দিক ও দেবব্রত দাস।

dpl logo with sponsors

নাইম হাসানের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হয়ে জুনায়েদ ৪৩ রানে সাজঘরে ফিরলে ভাঙ্গে এই দুই ব্যাটসম্যানের ৪৬ রানের জুটি। এরপর অলোক কাপালির সাথে ৮১ ও শেষদিকে ইয়াসির আলির সাথে ৯৯ রানের পার্টনারশিপের উপর ভর করে ব্রাদার্সকে ২৭৩ রানের সংগ্রহ এনে দেন দেবব্রত দাস। অলক ৪১ ও ইয়াসির ৫৪ রানে ফিরলেও লিস্ট-এ ক্যারিয়ারে নিজের প্রথম সেঞ্চুরিটা ঠিকি তুলে নেন দেবব্রত। শেষ পর্যন্ত ১১২ রানে অপরাজিত থাকেন পশ্চিম বাংলার এই ব্যাটসম্যান।

২৭৪ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভাল হয়নি গাজীরও। দলীয় ১৩ রানে মেহেদি হাসানকে ফিরিয়ে ব্রাদার্স শিবিরে স্বস্তি আনেন পেসার খালেদ আহমেদ। ব্রাদার্সের সেই স্বস্তি অবশ্য বেশিক্ষণ থাকতে দেননি গাজীর দুই ব্যাটসম্যান ইমরুল কায়েস ও মুমিনুল হক। বলের সাথে পাল্লা দিয়ে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে এই দুই ব্যাটসম্যান যোগ করেন ১১১ রান। দলীয় ১২৪ রানে ৬৫ রানে থাকা ইমরুল আউট হয়ে গেলে ভাঙ্গে এই জুটি। এরপর মুনিমুলও দাঁড়াতে পারেনি বেশিক্ষণ, লিস্ট-এ ক্যারিয়ারে নিজের ১৮ নাম্বার ফিফটিতেই সন্তুষ্ট থেকে অলক কাপালির বলে হিট-উইকেট হয়ে ফিরে যান তিনিও।

সেখান থেকে ব্রাদার্সের বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে খেই হারিয়ে ফেলে গাজীর ব্যাটসম্যানরা। ভারতীয় ব্যাটসম্যান গুরকেরাত সিং একপ্রান্ত আগলে রেখে খেললেও তাকে সঙ্গ দিতে পারেনি আর কোন ব্যাটসম্যান। শেষদিকে নাইম হাসানকে সাথে নিয়েই ৭১ রানের হার না মানা এক ইনিংস খেলে একাই ম্যাচ বের করে নেন গুরকেরাত। ফলে দুই উইকেটে হয় পায় গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

ব্রাদার্স ইউনিয়নঃ ২৭৩/৫ (৫০ ওভার) দেবব্রত দাস ১১২*, ইয়াসির আলি ৫৩, জুনায়েদ সিদ্দিকী ৪৩, অলক কাপালি ৪১, নাইম হাসান ২/২৯, রুহেল আহমেদ ২/৫৬, আবু হায়দার ১/৬৪

গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সঃ ২৭৬/৮ (৪৯.১ ওভার) গুরকেরাত সিং ৭১*, ইমরুল কায়েস ৬৫, মুমিনুল হক ৫৭, নাহিদুরজ্জামান ২/৪৩, মেহেদি হাসান রানা ২/৪৯, খালেদ আহমেদ ২/৫৭

ফলাফলঃ গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স ২ উইকেটে জয়ী

ম্যাচসেরাঃ গুরকেরাত সিং (গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স)

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

মিরাজ-সানজামুলের ব্যাটে ঝড়

Read Next

মাশরাফি ও আবাহনীর ‘৫’

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share