অংকন-আশোকের জুটিতে বিফল জহুরুলের শতক

match report 11
Vinkmag ad

সাভারের বিকেএসপিতে ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন লিগের ১৩তম ম্যাচে গাজী গ্রুপকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে খেলাঘর সমাজ কল্যান সমিতি। খেলাঘরের হয়ে ৮৫ রান করে লিগে গুরুত্বপূর্ন পয়েন্ট এনে দেন মাহিদুল ইসলাম অংকন।

২৪৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে খেলাঘরের দুই উদ্বোধনি ব্যাটসম্যান রবিউল ইসলাম রবি এবং নাফিস ইকবাল ৫০ রানের এক জুটি গড়ে দলকে দারুণ সূচনা এনে দেন। রবিউল ইসলাম আউট হন ৩২ রান করে। দেখে শুনে খেলতে থাকা নাফিস ইকবাল দলীয় ৬৩ রানে ব্যক্তিগত ২৮ রানে আউট হন।

এর পরেই খেলার হাল ধরেন অংকন। অমিত মজুমদারের সাথে প্রথমে গড়েন ৩৯ রানের এক জুটি। অমিত ২৪ রানে আউট হয়ে গেলেও রাজস্থানের আশোক মেনারিয়ার সাথে গড়ে তুলেন ১০৩ রানের এক বিশাল জুটি। সেই জুটির কল্যানে দল একটি মজবুত ভিত্তি পেলেও নিজের শতকের থেকে মাত্র ১৫ রান দূরে থাকতে নাইম হাসানের বলে মুমিনুল হকের কাছে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন অংকন। ফেরার আগে ১০৯ বলে ৭টি চার এবং ৪টি ছয়ের মাধ্যমে ৮৫ রান করেন।

এরপরে ২ চার ২ ছয়ে অর্ধশতক পূর্ণ করা আশোক ৫১ রানে যখন আউট হলেন, দল তখন ১০ বল হাতে রেখে জয়ের থেকে মাত্র ৫ রান দূরে। আগের বলেই আশোকের উইকেট পাওয়া রাব্বির বলে ৬ মেরে দলকে জয়ের বন্দরে পৌছে দেন নতুন ব্যাটসম্যান মইনুল ইসলাম। এছাড়াও নাজিমুদ্দিন অপরাজিত ছিলেন ১৪ রানে।

গাজী গ্রুপের হয়ে নাইম হাসান পান দুটি উইকেট। এছাড়াও কামরুল ইসলাম রাব্বি, রুহেল আহমেদ এবং মুমিনুল ইসলাম পান ১ টি করে উইকেট।

এর আগে টসে হেরে ব্যাটিং করতে আসা গাজী গ্রুপ শুরুতেই হারায় দলের ওপেনার ইমরুল কায়েসকে। তবে জহুরুল ইসলাম এবং মুমিনুল হক ৭২ রানের জুটি গড়ে সেই ধাক্কাকে ভালো সামাল দেন। জহুরুল ইসলামের ঠান্ডা মাথার ইনিংস এক প্রান্ত আগলে রাখলেও অপর প্রান্তে জাকির আলি এবং নাদিফ চৌধুরীর উইকেট দুটো দ্রুত পরে গেলে ব্যাকফুটে চলে যায় গাজী গ্রুপ।

১২৮ রানে ৪ উইকেট হারানো গাজীর হাল ধরেন জহুরুল এবং রজত ভাটিয়া। দুজনে মিলে পাক্কা ১০০ রানের এক জুটি গড়ে একটি চ্যালেঞ্জিং স্কোরের ইঙ্গিত দিলেও খেলাঘরের কিপটে বোলিং সেই সম্ভাবনা রুখে দেয়। জহুরুল যখন ১৪২ বলে ৫ চার ১ ছয়ে নিজের শতক পূর্ণ করে ১০২ রানে আউট হন, দলের রান তখন ২২৮। ইনিংসের ১১ বল বাকি থাকাতেই যেনো খোলস ছাড়া হয়েছিলেন রজত ভাটিয়া। এক ঝোড়ো ইনিংসে তিনি আর নুরুজ্জামান মিলে শেষ ১১ বলে তোলেন ১৯ রান। যেখানে নুরুজ্জামানের অবদান মাত্র ৩ রান। রজত ভাটিয়া অপরাজিত থাকেন ৬০ বলে ৬১ রান করে। খেলা ঘরের সাদ্দাম, হাসান, রাফসান এবং তানভির প্রত্যেকে এক উইকেট করে নেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর কার্ডঃ

গাজী গ্রুপঃ ২৪৭/৫; জহুরুল ১০২(১৪২), ভাটিয়া ৬১(৬০), মুমিনুল ৪৬(৪৭); রাফসান ১/১২, সাদ্দাম ১/৪২, হাসান ১/৫০, তানভির ১/৫১।

খেলাঘর সমাজ কল্যাণ সমিতিঃ ২৪৯/৫; অংকন ৮৫(১০৯), আশোক ৫১(৫০); নাইম ২/৪৮, মুমিনুল ১/১২, রুহেল ১/৪৯, রাব্বি ১/৬০।

ফলাফলঃ খেলাঘর সমাজ কল্যান সমিতি ৫ উইকেটে জয়ী।

ম্যান অফ দ্যা ম্যাচঃ মাহিদুল ইসলাম অংকন (খেলাঘর সমাজ কল্যাণ সমিতি)

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

কিউইদের কাছে হেরে ইংলিশদের বিদায়

Read Next

টি-টোয়েন্টিতেও অধিনায়ক রিয়াদ, সাকিবের বদলি ওপু

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share