সেঞ্চুরি উৎসবে শেষ হল বিসিএলের তৃতীয় রাউন্ড

bcl

আজ খুলনা ও রাজশাহীতে জাতীয় লিগের তৃতীয় রাউন্ডের ম্যাচ দুটি শেষ হল ড্রয়ের মাধ্যমে। খুলনায় পূর্বাঞ্চলের ব্যাটসম্যানরা যেন ক্রিজেই নেমেছিল সেঞ্চুরি করতে।

প্রথম ইনিংসে ৪ ব্যাটসম্যানের সেঞ্চুরিতে (একটি ডাবলসহ) ৭৩৫ রানে ইনিংস ঘোষণা করা পূর্বাঞ্চল নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসেও যতক্ষণ ব্যাটিং করেছে হারায়নি কোন উইকেট, দুই ওপেনার তাসামুল হক ও মেহেদী মারুফ তুলে নিয়েছেন সেঞ্চুরি। পূর্বাঞ্চলের করা ৭৩৫ রানের জবাবে মধ্যাঞ্চল অল আউট ৪২৮ রানে। কোন সেঞ্চুরি না হলেও ৫ ব্যাটসম্যান করেছেন হাফ সেঞ্চুরি।

৭ উইকেটে ৩৫২ রানে তৃতীয় দিন শেষ করা মধ্যাঞ্চল আজ আর ৬৬ রান তুলেই অল আউট হয়ে যায়। আগেরদিন ২০ রানে অপরাজিত থাকা তানভীর হায়দার করেন ৫৬ রান। এছাড়া রকিবুল হাসান ৮৫, শুভাগত হোম ৭৩, মার্শাল আইয়ুব ৬৫ ও সাদমান ইসলাম ৫৬ রান করেন। পূর্বাঞ্চলের সোহাগ গাজী একাই পকেটে পুরেন ৭ উইকেট, এছাড়া এনামুল হক জুনিয়র দুটি ও খালেদ আহমেদ একটি উইকেট নেন।

26692205 1812842195453583 1669860889 o২৯৩ রানে এগিয়ে থেকে ব্যাট করতে নামা পূর্বাঞ্চল শেষদিনের পুরো সময় ব্যাট করে কোন উইকেট না হারিয়ে যোগ করেন আরও ২২৬ রান। তাসামুল হক ১৬০ বলে ১২ চারে ১০৮ রানে ও মেহেদী মারুফ ১৫৩ বলে ১০ চার ও ২ ছক্কায় ১১১ রানে অপরাজিত থাকেন।

অন্যদিকে রাজশাহীতে উত্তরাঞ্চল ও দক্ষিণাঞ্চলের মধ্যকার ম্যাচটি শেষ হল জুনায়েদ সিদ্দিকীর জোড়া সেঞ্চুরিতে। প্রথম ইনিংসে ১৩৭ রানের পর দ্বিতীয় ইনিংসেও খেললেন ১৫০ রানের দুর্দান্ত ইনিংস। উত্তরাঞ্চের ৪০৮ রানের জবাবে ইমরুল কায়েস ও তুষার ইমরানের সেঞ্চুরিতে ভর করে ৮ উইকেটে ৪২৯ রানে ৩য় দিন শেষ করেছিল দক্ষিণাঞ্চল, ইমরুল আউট হলেও তুষার ইমরান অপরাজিত ছিলেন ১৪৮ রানে। কিন্তু আজ দিনের দ্বিতীয় বলেই কোন রান যোগ না করেই ফিরে যান তুষার ইমরান। দক্ষিণাঞ্চলও অল আউট হয়ে যায় ৪৩৩ রানে। উত্তরাঞ্চলের শফিউল ইসলাম ও তাইজুল ইসলাম চারটি এবং শুভাশীস রায় ও আরিফুল হক একটি করে উইকেট নেন।

২৫ রানে পিছিয়ে থাকা উত্তরাঞ্চল শেষদিনের বাকী সময় ব্যাট করে ৫ উইকেট হারিয়ে তোলে ৩৬৫ রান। সেঞ্চুরি তুলে নেন জুনায়েদ সিদ্দিকী ও আরিফুল হক। ১৭০ বলে ১৬ চার ১ ছক্কায় ঠিক ১৫০ রান করে মোসাদ্দেক হোসেনের বলে আউট হন জুনায়েদ। জুনায়েদ সিদ্দিকী আউট হলেও শেষদিনের শেষদিকে ধুমধাড়াক্কা ব্যাটে ঝড় তোলেন আরিফুল হক। মাত্র ৮৩ বলে ৬ চার ও ৬ ছক্কায় ১০৩ রানে অপরাজিত থাকেন আরিফুল। দক্ষিণাঞ্চলের কামরুল ইসলাম রাব্বি, আল আমিন হোসেন, আব্দুর রাজ্জাক, সৌম্য সরকার ও মোসাদ্দেক হোসেন একটি করে উইকেট নেন।

নির্ধারিত দিন শেষ হওয়ায় ড্রয়ের মাধ্যমেই শেষ হয় ম্যাচ দুটি।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

হাথুরুসিংহেদের দেখানো হয়নি মূল উইকেট!

Read Next

এলিট ক্লাবে জায়গা পেতে সাকিবের চাই ৩ উইকেট

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share