টুর্নামেন্টে টিকে থাকল শ্রীলঙ্কা

match report 21

হারলেই ফাইনালের আশা শেষ, এমন সমীকরণের ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে শ্রীলঙ্কা। এই জয়ে ফাইনালে খেলবার স্বপ্ন বেঁচে থাকল লঙ্কানদের। আগেভাগেই ফাইনাল নিশ্চিত করা বাংলাদেশ বড় মঞ্চে প্রতিপক্ষ হিসেবে কোন দলকে পাবে তা জানতে অবশ্য অপেক্ষা করতে হচ্ছে। এখনও যদিও নেট রানরেটে শ্রীলঙ্কার চেয়ে এগিয়ে জিম্বাবুয়ে। 

নিজেদের বাঁচামরার লড়াইয়ে টসে হেরে আগে বোলিং করতে নামে শ্রীলঙ্কা। প্রথম উইকেটের দেখা পেতে ১০ ওভার অপেক্ষা করতে হলেও এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট নিতে থাকে লঙ্কান বোলাররা। পঞ্চম উইকেটে যা একটু প্রতিরোধ গড়ে তোলে ব্রেন্ডন টেলর-ম্যালকম ওয়ালার জুটি।

DUEVUvUWAAAuy3k

নির্বাসন ভেঙে জিম্বাবুয়ের হয়ে খেলতে নামবার পর আজই প্রথম ফিফটির দেখা পান ব্রেন্ডন টেলর। থিসারা পেরেরার চতুর্থ শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরার আগে করেন ৫৮ রান। এছাড়া অধিনায়ক গ্রায়েম ক্রেমার ৩৪ রান করলে জিম্বাবুয়ে অলআউট হয় ১৯৮ রান করে। থিসারা পেরেরা ৪ টি, নুয়ান প্রদীপ ৩ টি ও লাকসান সান্দাকান ২ টি উইকেট পান। রান আউটের ফাঁদে পড়ে ‘ডায়মন্ড ডাকেই’ (০ বলে ০) কাটা পড়েন পিটার মুর।

১৯৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নামা লঙ্কানরা প্রথম উইকেট হারায় দলীয় ৩৩ রানের মাথায়। ১৭ রান করা উপুল থারাঙ্গাকে বোল্ড করে ফেরান চাতারা। দ্বিতীয় উইকেটে দুই কুশল (মেন্ডিস ও পেরেরা) ৭০ রান তুলে জয়ের পথ সুগম করেন। তবে ১৪  রানের ব্যবধানে ৩ উইকেট হারিয়ে অস্বস্তিতে পড়ে ১৯৯৬ বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়নরা। সেই অস্বস্তি দূর হয় অধিনায়ক দীনেশ চান্দিমাল ও থিসারা পেরেরার ব্যাটে। ৩৮ রান করে অপরাজিত থাকেন চান্দিমাল, ৩৯ রান করে অপরাজিত থাকেন থিসারা পেরেরা। জিম্বাবুয়ের হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন ব্লেসিং মুজারাবানি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

জিম্বাবুয়ে ১৯৮/১০ (৪৪), মাসাকাদজা ২০, মিরে ২১, আরভিন ২, টেলর ৫৮, রাজা ৯, ওয়ালার ২৪, মুর ০, ক্রেমার ৩৪, জার্ভিস ৫, চাতারা ২*, মুজারাবানি ০, লাকমাল ২৩/০, প্রদীপ ২৮/৩, থিসারা ৩৩/৪, ধনঞ্জয়া ৪৫/০, সান্দাকান ৫৭/২, গুনারাত্নে ৪/০

শ্রীলঙ্কা ২০২/৫ (৪৪.৫), পেরেরা ৪৯, থারাঙ্গা ১৭, মেন্ডিস ৩৬, ডিকওয়েলা ৭, চান্দিমাল ৩৮*, গুনারাত্নে ৯, থিসারা ৩৯*, জার্ভিস ৩৪/১, চাতারা ৪০/১, মুজারাবানি ৫২/৩, রাজা ৪৪/০, ক্রেমার ২৯/০

ফলাফল: শ্রীলঙ্কা ৩১ বল ও ৫ উইকেট হাতে রেখে জয়ী।]

ম্যাচসেরা: থিসারা পেরেরা (শ্রীলঙ্কা)

পয়েন্ট তালিকা:

১. বাংলাদেশ- ২ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট (নেট রান রেট: +২.৯৮৫)

২. জিম্বাবুয়ে- ৩ ম্যাচে ৪ পয়েন্ট (নেট রান রেট: -০.৮৯২)

৩. শ্রীলঙ্কা- ৩ ম্যাচে ৪ পয়েন্ট (নেট রানরেট: -০.৯৮৯)

Shihab Ahsan Khan

Shihab Ahsan Khan, Editorial Writer of Cricket97 & en.Cricket97

Read Previous

মিজানুরের সেঞ্চুরিতে ভালো অবস্থানে উত্তরাঞ্চল

Read Next

বাটলার ঝড়ে সিরিজ জিতলো ইংল্যাল্ড

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share