টপ ফাইভ টাইগার্স ২০১৭-ক্রিকেট৯৭

featured photo1
Vinkmag ad

নতুন বছর (২০১৮) শুরু হতে যাচ্ছে, আর সামনে আসছে চলতি বছরের (২০১৭) আমলনামা। বছরজুড়ে দেশী ক্রিকেটারদের মধ্যে কারা ছিলেন উজ্জ্বল তা খুঁজেছে ক্রিকেট৯৭। পাঠকদের জন্যে আজ তুলে ধরা হল বছরের সেরা পাঁচ বাংলাদেশী ক্রিকেটারের পারফরম্যান্স। 

১. সাকিব আল হাসানঃ

267614
অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজে সাকিব ছিলেন আতঙ্কের নাম

২০১৭ সালে সাকিব আল হাসান খেলেছেন ৭টি টেস্ট। ৪৭.৫০ গড়ে সাকিব রান করেছেন ৬৬৫। এই বছরই এক ইনিংসে নিজের টেস্ট ক্যারিয়ারের সর্বোচ্চ রান করেছেন সাকিব। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ২১৭ রানের ইনিংস ছাড়াও সাকিব শতকের দেখা পেয়েছেন আরও একটি, অর্ধশতক তিনটি। টেস্টে বল হাতেও সাকিব ছিলেন উজ্জ্বল। অজিদের বিপক্ষে একই টেস্টের দুই ইনিংসে নিয়েছিলেন ৫টি করে উইকেট। ৭ টেস্টে সাকিব উইকেট পেয়েছেন ২৯টি। টেস্টে একবার করে সাকিব হয়েছেন ম্যাচ ও সিরিজসেরা। বছরের শেষের দিকে পেয়েছেন টেস্ট দলের অধিনায়কত্বের দায়িত্ব।

264188
চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে নিয়ে গড়েছিলেন রেকর্ড জুটি

এই বছর সাকিব ওয়ানডে খেলেছেন ১৪টি। ব্যাট হাতে ৩৫.৮৩ গড়ে সাকিব করেছেন ৪৩০ রান। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচজয়ী ১১৪ রানের ইনিংসই এই বছর সাকিবের একমাত্র শতক। তাছাড়া অর্ধশতকের দেখা পেয়েছেন তিনবার। বল হাতে মাত্র ৬ উইকেট পেয়েছেন এই বছর। টেস্টের মতো ওয়ানডেতেও একবার হয়েছেন ম্যাচসেরা।

ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম সংস্করণ টি-টোয়েন্টিতে এই বছরই নতুন করে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব পেয়েছেন। খেলেছেন ৭টি ম্যাচে। আর সেখানে রান করেছেন ১২০, উইকেট পেয়েছেন ৮টি, ম্যাচসেরার পুরষ্কার জিতেছেন একটি ম্যাচে।

২০১৭ সালে তিন ফরম্যাটেই অন্তত একবার করে ম্যাচসেরার পুরষ্কার জেতা একমাত্র বাংলাদেশী সাকিব আল হাসান; সন্দেহাতীত ভাবে সাকিবই এই বছরে সেরা বাংলাদেশী পারফর্মার।

২. তামিম ইকবালঃ 

Tamim Iqbal Web Story
ওয়ানডেতে তামিমের ব্যাট হেসেছে বারবার

২০১৭ সালে তিন ধরণের ফরম্যাট মিলিয়ে সর্বোচ্চ রানের (১২৮৬) মালিক তামিম ইকবাল। ওয়ানডে ও টেস্টে একবার করে ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতা তামিম এই বছরে দ্বিতীয় সেরা বাংলাদেশী পারফর্মার।

৮ টি টেস্ট খেলে তামিম কোন শতক না পেলেও ৫ টি অর্ধশতকে করেছেন ৫৩৭ রান; গড় ৩৩.৫৬। ম্যাচসেরা হয়েছেন একটি টেস্টে। বছরের শেষভাগে অবশ্য হারিয়েছেন টেস্টে সহ অধিনায়কত্বের দায়িত্ব।

ওয়ানডেতে ব্যাট হাতে স্বপ্নের মত একটি বছর কাটিয়েছেন তামিম। ১২ ওয়ানডে খেলে ২ টি শতক ও ৪ টি অর্ধশতকে করেছেন ৬৪৬ রান; গড় ৮৩.১৪! টেস্টের মতো ওয়ানডেতেও একবার পেয়েছেন ম্যাচসেরার তকমা।

ওয়ানডে ও টেস্টের মতো টি-টোয়েন্টিতে ঠিক হাসেনি তামিমের ব্যাট। ৭ ম্যাচ খেলে তামিম রান করেছেন মাত্র ১০৩ রান। কোন ম্যাচেই পার করতে পারেননি ২৫ রানের গন্ডি (সর্বোচ্চ ২৫)।

৩. মুশফিকুর রহিমঃ

267822
অধিনায়কত্ব হারালেও ২০১৭ তে সফলতম টেস্ট ব্যাটসম্যান ছিলেন মুশফিকুর রহিম

২০১৭ সালে টেস্টে সবচেয়ে সফল বাংলাদেশী ব্যাটসম্যানের নাম মিস্টার ডিপেন্ডেবল, মুশফিকুর রহিম। ৮ টেস্ট খেলে কিছুদিন আগেই টেস্ট অধিনায়কত্ব হারানো মুশফিক করেছেন ৭৬৬ রান; গড় ৫৪.৭১। এই বছরেই দেখা পেয়েছেন ৩ টি অর্ধশতক ও ২ টি শতকের। নিয়মিত উইকেটের পেছনে মুশফিককে দেখা না গেলেও টেস্টে এই বছরে মুশফিকের ডিসমিসালের সংখ্যা ১৪ টি।

২০১৭ সালে টেস্টে ডিসমিসালের সংখ্যার সমান (১৪ টি) ওয়ানডে খেলেছেন মুশফিকুর রহিম। যেখানে ৪৫.৮০ গড়ে মুশফিক করেছেন ৪৫৮ রান। ৪ টি অর্ধশতকের বিপরীতে মুশফিক করেছেন ১ টি শতক (১১০*)। ১ টি ম্যাচে ম্যাচসেরা হওয়া মুশফিকের ওয়ানডেতে এই বছর ডিসমিসালের সংখ্যা ১০।

টেস্ট ও ওয়ানডের মতো টি-টোয়েন্টিতে আশাব্যাঞ্জক পারফরম্যান্স করতে পারেননি মুশফিক। ৪টি ম্যাচ খেলে করেছেন মাত্র ৩৮ রান, ডিসমিসালের সংখ্যা ১।

টি-টোয়েন্টিতে ব্যর্থ হলেও তিন ফরম্যাট মিলে এই বছর ২য় সর্বোচ্চ রানের (১২৬২) মালিক মুশফিক।

৪. মাহমুদউল্লাহ রিয়াদঃ 

264181
আইসিসি ইভেন্টে বরাবরের মতো জ্বলে উঠে মাহমুদউল্লাহ নিজেকে বড় মঞ্চের নায়ক প্রমাণ করেছেন

২০১৭ সালে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের পারফরম্যান্স ছিলো মোটামুটি মানের (সক্ষমতা অনুযায়ী)। তবুও দলের প্রয়োজনে সাড়া দিয়ে ভালো খেলার ফল এই বছরে চতুর্থ সেরা বাংলাদেশী পারফর্মার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

৬ টেস্টে ৩১০ রান করেছেন মাহমুদউল্লাহ। অর্ধশতক করেছেন ২টি, বল হাতে পাওয়া উইকেটের সংখ্যাও ২। চন্ডিকা হাথুরুসিংহে কোচ থাকাকালীন বাদ পড়েছিলেন টেস্ট দল থেকেও। তবে তার বিদায়ের পর এখন মাহমুদউল্লাহ বাংলাদেশ টেস্ট দলের সহ অধিনায়ক।

১৪ ওয়ানডে খেলে ৫১.৪২ গড়ে মাহমুদউল্লাহ করেছেন ৩৬০ রান। ১ টি অর্ধশতকের পাশাপাশি শতকও করেছেন ১ টি । নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দলের বিপদের সময়ে ক্রিজে এসে খেলা তার ইনিংসটি (১০২*) প্রমাণ করে ব্যাট হাতে তার সক্ষমতা।

৭ টি-টোয়েন্টি খেলা মাহমুদউল্লাহ রান করেছেন ১৫১; গড় ২৫.১৬, সর্বোচ্চ ৫২। বল হাতে উইকেটও নিয়েছেন ১ টি।

৫. মুস্তাফিজুর রহমানঃ

261104
পুরপুরি ছন্দে না থাকলেও ২০১৭ তে সফলতম পেসার মুস্তাফিজই

২০১৭ সাল বাংলাদেশী পেসারদের জন্যে ছিল ভুলে যাবার মতো একটি বছর। যেখানে পেসারদের মধ্যে একটু আধটু বলার মতো পারফরম্যান্স করে দেখিয়েছেন ইনজুরি কাটিয়ে ফেরা, পুরপুরি ছন্দে না থাকা মুস্তাফিজুর রহমান। তাতেই তিনি জায়গা করে নিয়েছেন সেরা পাঁচে।

২০১৭ সালে ৬ টি টেস্টে বল করে ৩৬.৩৭ গড়ে মুস্তাফিজ উইকেট দখল করেছেন ১৬ টি। তার চেয়ে বেশি উইকেট পেয়েছেন শুধু সাকিব (৭ ম্যাচে ২৯ টি) ও মেহেদী হাসান মিরাজ (৮ ম্যাচে ২৪ টি)। উল্লেখ্য, আর কোন বাংলাদেশী পেসারই ১০ এর বেশি টেস্ট উইকেট পাননি।

১১ টি ওয়ানডে খেলা মুস্তাফিজের উইকেট সংখ্যা ১৪। ওয়ানডেতে পেসারদের মধ্যে তো বটেই, মুস্তাফিজই বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ ওয়ানডে উইকেটের মালিক। ১ বার হয়েছেন ম্যাচসেরাও (৪/২৩)।

যেই ফরম্যাটে মুস্তাফিজের বোলিং সবচেয়ে বেশি কার্যকরী, সেই টি-টোয়েন্টি খেলেছেন ৪ টি।  ১৯.২০ গড়ে উইকেট নিয়েছেন ৫ টি, ওভারপ্রতি রান দিয়েছেন ৬.৮৫।

একনজরে (ভিডিও)

Shihab Ahsan Khan

Shihab Ahsan Khan, Editorial Writer- Cricket97

Read Previous

বক্সিং ডে টেস্টে বৃষ্টি আসার আগে ওয়ার্নার-স্মিথের প্রতিরোধ

Read Next

লো-স্কোরিং ম্যাচে এডিসন গ্রুপের বড় জয়

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share