এবার টি-টোয়েন্টিতে রোহিতের শতক, সিরিজ ভারতের

rohit
Vinkmag ad

শুরুর দিকে ক্ষুদ্র কিছু সাফল্য ছাড়া ২০১৭ সালটাকে ভুলে যেতে চাইবে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট। দেশ ঘুরে বিদেশ, বদলেছে প্রতিপক্ষ, বদলেছে ফরম্যাট, অধিনায়কত্বের সাথে একাধিকবার বদল এসেছে দলেও। তবুও হতাশার বৃত্ত থেকে বের হতে পারছে না লঙ্কান ক্রিকেট দল! এই দলটাই বছর শেষে ভারত সফরে একের পর এক লজ্জা উপহার দিয়ে গেল সমর্থকদের। আজ স্বাগতিকদের সাথে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে হেরে তাদের ভারত সিরিজের ষোলকলা পূর্ণ হল।

team india huddle 806x605 81496905715

চলতি বছরে শেষ বারের মত পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে ভারতে এসেছিল শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল। স্বাগতিকদের সাথে সিরিজ শুরুর দিকে কিছুটা প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারলেও একদমই খেই হারিয়ে ফেলেছে শেষ দিকে এসে। আজকের ম্যাচে পরাজয়ের মধ্য দিয়ে তিন ফরম্যাটের তিনটি সিরিজেই হার নিশ্চিত করল সফরকারী দল।

এদিন ইন্দোরের হোলকার ক্রিকেট স্টেডিয়াম কি মনে করে টস জিতে শুরুতে প্রতিপক্ষকে আগে ব্যাট করাতে আমন্ত্রণ জানালেন তা হয়তো শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক থিসারা পেরেরাই ভাল বলতে পারবেন। লঙ্কান দলপতি ভুল করলেও ভুল করেননি ভারতীয় অধিনায়ক রোহিত শর্মা। লোকেশ রাহুলকে নিয়ে ওপেন করতে এসে সফরকারী বোলারদের উপর টর্নেডো বইয়েছেন। একের পর এক দৃষ্টিনন্দন শটে মাত্র ২৩ বলেই পার করেন অর্ধশত রানের কোটা।

পঞ্চাশ পেরনো রোহিতের ব্যাট এদিন হয়ে যায় আরো বেশি হিংস্র, তেইশের সাথে আর মাত্র ১২ বল খরচ করে তুলে নেন ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে নিজের দ্বিতীয় শতক। কুঁড়ি ওভারের এই ক্রিকেটে ছুঁয়ে ফেলেন ডেভিড মিলারের দ্রুততম সেঞ্চুরির (৩৫ বলে) রেকর্ড। রেকর্ড হতে পারতো ওপেনিংয়ে সর্বোচ্চ জুটিরও। রোহিত ১১৮ রানে বিদায় নিলে রেকর্ড থেকে মাত্র ৬ রান দূরে থেকে ১৬৫ রানে থেমে যায় রোহিত-রাহুলের জুটি। রোহিত ফিরলেও থামেননি রাহুল, ধোনির সাথে জুটি গড়ে স্কোরবোর্ডে যোগ করেন ৭৮ রান।

ইনিংসের ৯ বল বাকি থাকতে ৮৯ রানে বিদায় নেন রাহুল। এরপর ধোনিও ফিরে যায় ২৮ রান করে। এই দুই ব্যাটসম্যান ক্রিজে থাকার সময় যেখানে মনে হচ্ছিল এই লঙ্কানদের সাথেই অস্ট্রেলিয়ার করা টি-টোয়েন্টির দলীয় সর্বোচ্চ (২৬৩) স্কোর ভেঙ্গে নতুন রেকর্ড গড়া সময়ের ব্যাপার মাত্র! সেখানে এই দু’জন ফিরে গেলে ৫ উইকেট হারিয়ে ২৬০ রানেই থামে ভারতের ইনিংস।

২৬১ রানের পাহাড়সম টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা দেখেশুনে করেন লঙ্কান দুই ওপেনার ডিকওয়ালা ও উপুল থারাঙ্গা। ডিকওয়ালা ২৫ রানে বিদায়ের পর থারাঙ্গাকে সাথে নিয়ে ১০৯ রানের জুটি গড়েন কুশল পেরেরা। দলীয় ১৪৫ রানে চ্যাহালের বলে থারাঙ্গা ব্যক্তিগত ৪৭ রান করে আউট হলে ভাঙ্গে তাদের এই জুটি। এরপর কুশলও ৭৭ রানে প্যাভিলিয়নের পথ ধরলে ওখানেই পরাজয় নিশ্চিত হয়ে যায় সফরকারীদের।

১৮ তম ওভারে ১৭২ রানে নবম ব্যাটসম্যান হিসাবে চামারা আউট হলে ম্যাচ চলাকালীন ইনজুরিতে পড়া ম্যাথুজ আর ব্যাটিংয়ে না নামায় ৮৮ রানে ম্যাচ জয়ের সাথে সিরিজও নিজেদের নিশ্চিত করে স্বাগতিক ভারত। তিন ম্যাচ সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৪ ডিসেম্বর মুম্বাইতে।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

ভারতঃ ২৬০/৫ (২০) রোহিত শর্মা ১১৮, লোকেশ রাহুল ৮৯, এম.এস ধোনি ২৮, হার্দিক পান্ডিয়া ১০; থিসারা পেরেরা ২/৪৯, প্রদীপ ২/৬১

শ্রীলঙ্কাঃ ১৭২/৯ (১৭.২) কুশল পেরেরা ৭৭, উপুল থারাঙ্গা ৪৭, ডিকওয়ালা ২৫; উজবেন্দ্র চাহাল ৪/৫২, কুলদীপ যাদব ৩/৫২,

ফলাফলঃ ভারত ৮৮ রানে জয়ী

ম্যাচসেরাঃ রোহিত শর্মা (ভারত)

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ইয়াসির আলির শতকে বড় সংগ্রহ চট্টগ্রামের

Read Next

শিরোপার সুবাতাস পাচ্ছে খুলনা

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share