কিউই ঝড়ে নীল উইন্ডিজ

received 1281286372017153
Vinkmag ad

বিপিএল মাতানো গেইল আর এভিন লুইস ওপেনিংয়ে নেমে প্রথম তিন ওভার শেষে দলের রান শুন্য। ব্যাপারটা অবিশ্বাস্য ঠেকলেও এমনটাই হয়েছে ফাঙ্গারেইতে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে। যেখানে নিউজিল্যান্ড জয় তুলে নেয় ৫ উইকেটের ব্যবধানে ২৪ বল হাতে রেখেই।

received 1281286245350499

ক্যারিবিয়ান ইনিংসের গোড়াপত্তন করা গেইল আর লুইস মিলে প্রথম পাওয়ারপ্লেতে রান নেন ৪০। দেখেশুনে মন্থর ভাবে খেলতে থাকলেও অনেকদিন পর নিউজিল্যান্ড দলে ফেরা ডগ ব্রেসওয়েল নিজের প্রথম বলেই ফিরিয়ে দেন গেইলকে। আউট হয়ে যখন প্যাভিলিয়নে ফিরছিলেন তখন তার নামের পাশে রান সংখ্যা বড্ড বেমানান ভাবে ৩১ বলে ২২। একই ওভারের ৩য় বলে শাই হোপকে ফিরিয়ে দিয়ে উইন্ডিজ ইনিংসে দ্বিতীয় কোপটি মারেন ব্রেসওয়েল। যাওয়ার সময় হোপ ইনিংসের একমাত্র রিভিউটিকেও নষ্ট করে দিয়ে যান যার ফল পরে ভুগতে হয়েছে ক্যারিবীয়দের।

৩য় উইকেট জুটিতে লুইস আর শিমরন হেটমায়ার মিলে ৬২ রান করে প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করলেও শিমরনকে আউট করে সাজঘরের রাস্তা বাতলে দেন ওপেনিং ব্যাটসম্যান থেকে লেগ স্পিনার হওয়া টড অ্যাস্টল। অভিষেকে খেলতে নেমে ২৯ রান করেন শিমরন।

হোপের নষ্ট করা রিভিউটির জন্যে এবার কপাল পুড়ে এভিন লুইসের। অ্যাস্টনের বলে লেগ বিফোর হয়ে আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত নিয়ে সন্দেহ রেখেই ফিরে যেতে হয় লুইসকে। ১০০ বলে ৭৬ করা লুইস হয়তো তার সেঞ্চুরিটি করে যেতে পারতেন এবং দলও ভালো অবস্থানে থাকত যদি রিভিউ নিতে পারতেন। কারণ টিভি রিপ্লেতে দৃশ্যমান বল অনেকটাই স্ট্যাম্পের বাইরে দিয়ে যাচ্ছে।

মিডল অর্ডার খুব একটা প্রতিরোধ গড়তে না পারলেও লোয়ার মিডল অর্ডারে নেমে ৫০ বলে ৫৯ রানের এক ঝড়ো ইনিংস খেলে দলকে ২৪৮ রানের পুঁজি এনে দেন রোভম্যান পাওয়েল।

এরপর রান তাড়া করতে নেমে জর্জ ওয়ার্কার এবং কলিন মানরো ১০০ বলে ১০৮ রানের জুটি গড়ে দলের জয় প্রায় নিশ্চিতই করে ফেলেন। মানরো ৩৬ বলে ৪৯ রান করে বিদায় নিলেও আরেক ওপেনার ওয়ার্কার ৬৬ বলে ৫৭ রান করেই সাজঘরে ফিরেন। তিনে নামা কিউই দলনায়ক উইলিয়ামসনের ৪৫ বলে ৩৮ রান আর অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান রস টেইলরের ব্যাট থেকে আসে ৭৬ বলে ৪৯ রান।

এরপর নিয়মিত বিরতিতে আরও দুই উইকেট হারালেও আয়েশ করেই কিউইদের নিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যান টেইলর ২৪ বল হাতে রেখেই।

উইন্ডিজদের হয়ে হোল্ডার এবং নার্স দুটি করে উইকেট নেন।

৩১ বছর বয়সে অভিষিক্ত অ্যাস্টল ৩ উইকেটের পাশাপাশি ১৫ রান করলেও দীর্ঘদিন পর দলে ফেরা ব্রেসওয়েল ৪ উইকেট নিয়ে পান ম্যাচ সেরার পুরষ্কার।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
ওয়েস্ট ইন্ডিজ : ২৪৮/৯ (৫০ ওভার) গেইল ২২, লুইস ৭৬, শাই হোপ ০, হেটমায়ার ২৯, জেসন ৯, হোল্ডার ৮, পাওয়েল ৫৯, নার্স ২, বিটন ৩, উইলিয়ামস ১৬*, গ্যাব্রিয়েল ০*; সাউদি ০/৪৯, বোল্ট ০/৪৮, ফার্গুসন ২/৪৯, ব্রেসওয়েল ৪/৫৫, অ্যাস্টল ৩/৩৩, মানরো ০/৮

নিউজিল্যান্ড: ২৪৯/৫ (৪৬ ওভার) ওয়ার্কার ৫৭, মানরো ৪৯, উইলিয়ামসন ৩৯, টেইলর ৪৯*, ল্যাথাম ১৭, নিকোলস ১৭, অ্যাস্টল ১৫*; গ্যাব্রিয়েল ০/৫৭, বিটন ০/৪২, হোল্ডার ২/৫২, উইলিয়ামস ১/১৮, নার্স ২/৫৫, জেসন ০/১৩, পাওয়েল ০/১০

ফলাফল: নিউজিল্যান্ড ৫ উইকেটে জয়ী

ম্যান অব দ্যা ম্যাচ: ডগ ব্রেসওয়েল

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

সূচি এগিয়ে প্রিমিয়ার লিগে ‘প্লেয়ার্স বাই চয়েজ’

Read Next

মিরাজ ঘূর্ণিতে কুপোকাত ঢাকা বিভাগ

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share