এমন উইকেট আশা করিনিঃ তাসকিন

featured photo1 1 102
Vinkmag ad

পুরো ইনিংসে বাংলাদেশী বোলাররা উইকেট তুলে নিতে পেরেছেন মাত্র দুইটি। অথচ তাসকিন আহমেদ বলছেন, খারাপ বোলিং করেননি তারা। অমনটা হলে স্বাগতিকদের পুঁজি দাঁড়াতো ছয়শোরও বেশি। আরেকটু বাউন্স চেয়েছিলেন তাসকিন আহমেদ। বলেছেন এমন উইকেটের চাওয়া ছিলনা পেস বাহিনীর। 

প্রোটিয়াদের পতন হওয়া উইকেটের দুটি এসেছে বোলারদের হাত ধরে, বাকি একটা হয়েছে রানআউট। দুই দিনই প্রথম সেশন টাইগাররা কাটিয়েছে উইকেটশূন্য অবস্থায়। প্রথম দিনে দ্বিতীয় সেশনের শেষের দিকে এইডেন মারক্রাম শতক থেকে তিন রান দূরে থেকে ফিরেছিলেন রানআউটের শিকার হয়ে।

268593

দ্বিতীয় দিনের চা-বিরতি পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকা হারায়নি উইকেট। হাসিম তুলে নিয়েছিলেন শতক আর আগের দিনে শতকের দেখা পাওয়া ডিন এলগারের অপেক্ষা ছিল দ্বিশতকের। শেষমেশ আমলার উইকেট দিয়ে শফিউল ইসলাম তুলে নিয়েছিলেন বোলারদের হয়ে প্রথম উইকেট। ডিন এলগারকে ১৯৯ রানে আউট করে মুস্তাফিজ উপহার দিয়েছেন এক রানের আক্ষেপ।

দেশে থাকতে ভেবে এসেছিলেন একরকম। আর প্রোটিয়াদের প্রথম টেস্টের উইকেট তাসকিনরা দেখলেন আরেকরকম। বাউন্সটা থাকতে পারতো আরও বেশি। উইকেট ছিল পুরোপুরি ব্যাটিং সহায়ক। তাসকিন আহমেদের প্রত্যাশা মেটাতে পারেনি উইকেট।

“পিচ দেখে আমরা ভেবেছিলাম আরেকটু বাউন্স থাকবে। আমরা সেন্টার উইকেটে পাশে যখন অনুশীলন করেছি সেই উইকেটের বাউন্স আরেকটু বেশি ছিল। আরেকটু বেশি স্কিডি ছিল। এতটা মন্থর আর ফ্ল্যাট উইকেট হবে আমরা আশা করিনি।”

বোলাররা প্রত্যাশামত উইকেট না পেলেও রানের চাকা ঘুরতে দেননি খুব বেশী। তেমনটা হলে প্রতিপক্ষের সংগ্রহটা হতে পারতো ছয়শোর কাছাকাছি। সব মিলিয়ে নিজেদের বোলিং নিয়ে সন্তুষ্টই দেখা গেছে দলের হয়ে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হওয়া তাসকিনকে।

“যথেষ্ট উইকেট নিতে না পারায় আমরা হতাশ। আমরা খুব খারাপ বোলিং করিনি। যদি খারাপ বোলিং করতাম তাহলে ছয়শর কাছাকছি রান করত। যেভাবে বল করেছি তাতে খুশি।”

দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনে এলগার আর আমলা যেখানে তুলেছিলেন ১১৩ রান। লাঞ্চের পর স্বাগতিকদের সংগ্রহ ছিল ৮৫ রান, উইকেটও খুইয়েছে দুইটি। দুই নম্বর সেশনে ভালো বোলিংয়ের জন্য পরিকল্পনা মাফিক বোলিংকেই কৃতিত্ব দিলেন তাসকিন।

“একেক ব্যাটসম্যানের জন্য একেক পরিকল্পনা ছিল। (লাঞ্চের পর) আমরা পরিকল্পনা অনুযায়ী বোলিং করার চেষ্টা করেছি। একেক ব্যাটসম্যানের শক্তির জায়গা একেক রকম। তাদের জন্য ফিল্ডিং সেটআপ একেক রকম। ওই অনুযায়ী আমরা করার চেষ্টা করেছি। এখন সামনের দিকে তাকিয়ে আছি। ভালো একটা রান হলে হয়তো দ্বিতীয় ইনিংসে বোলিংও ভালো হবে।”

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

বাংলাদেশের ড্রেসিংরুম ভাবছেনা ফলোঅন নিয়ে

Read Next

হঠাৎ ইনিংস ঘোষণায় অপ্রস্তুত ছিল বাংলাদেশ

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share