ছোট মাঠে সাকিবহীন বাংলাদেশের কঠিন চ্যালেঞ্জ

featured photo1 1 90
Vinkmag ad

এইডেন মার্করামের টেস্ট অভিষেক, প্রোটিয়াদের কোচ হিসেবে ওটিস গিবসনের প্রথম ম্যাচ, নয় বছরের মধ্যে দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট এবং ২০০২ সালের পর সেনওয়েস পার্ক মাঠে দু’দলের প্রথম সাদা পোশাকের লড়াই। এই সমস্ত মাইলফলকগুলো নিয়ে বৃহস্পতিবার পচেফস্ট্রুমে বাংলাদেশ সময় দুপুর দুইটায় প্রোটিয়াদের বিপক্ষে কঠিন লড়াইয়ে নামবে টাইগাররা। 

এবার বাংলাদেশ দলে নেই দলের সেরা খেলোয়াড় সাকিব আল হাসান। দক্ষিণ আফ্রিকা দলেও নেই এবি ডি ভিলিয়ার্স, ডেইল স্টেইন, ভার্নন ফিল্যান্ডারের মতো তারকা ক্রিকেটাররা। তবে স্বাগতিকরা কন্ডিশনের দিক বিবেচনা করে গতির ঝড় তুলে নড়বড়ে করে দিতে চায় টাইগার ব্যাটসম্যানদের।

আর সে লক্ষ্যে দক্ষিণ আফ্রিকার বোলিং আক্রমণ সামলাবেন মর্নে মর্কেল ও কাগিসো রাবাদা। এছাড়া পেস বোলিং অলরাউন্ডার আন্দিলে ফেলুকওয়ায়ো বা ব্যাটসম্যান টিউনিস ডি ব্রুইনকে প্রথম টেস্টে প্রোটিয়া দলে দেখা যেতে পারে। পেস আর বাউন্স দিয়ে সফরকারীদের ঘায়েল করার ইচ্ছা ডু প্লেসিসের। অন্যদিকে, ভিন্ন কন্ডিশনে বাউন্স সামলাতে আত্মবিশ্বাসী মুশফিকুর রহিমের দল।

কেউ কেউ মনে করতে পারেন যে প্রোটিয়াদের নতুন কৌশলগুলো চেষ্টা করার জন্য বাংলাদেশ আদর্শ প্রতিপক্ষ। পরিসংখ্যানও তাই বলে, দক্ষিণ আফ্রিকায় খেলা চার টেস্টে ন্যূনতম প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারেনি বাংলাদেশ। চারটিতেই ইনিংস ব্যবধানে হেরেছিল বাংলাদেশ। তবে মানসিকভাবে এই দলটি ২০০২ এবং ২০০৮ সালে সফর করা দলটি থেকে ভিন্ন। তাই প্রথম টেস্টে মুশফিকদের কঠিন প্রতিপক্ষ হিসেবেই দেখছেন ফাফ ডু প্লেসিস।

বাংলাদেশ স্কোয়াডে যে পাঁচ পেসার রয়েছে তাদের মধ্যে মুস্তাফিজুর রহমান একদশে থাকছেন বলে ধরে নেওয়া যায়। দেশের মাটিতে খুব একটা ভালো বোলিং করেননি কিন্তু শ্রীলঙ্কায় টেস্ট সিরিজে করেছেন দারুণ বোলিং। তাকে নিয়ে আশায় আছে বাংলাদেশ। তাসকিন আহমেদ, শফিউল ইসলাম, শুভাশিস রায় চৌধুরী ও রুবেল হোসেনের মধ্যে যে কোন দুই জন প্রথম টেস্টে মুস্তাফিজের সঙ্গী হতে পারেন।

তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের মতো অভিজ্ঞদের সামনে থেকে পারফর্ম করা গুরুত্বপূর্ণ। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার না থাকায় দুইজন খেলোয়াড়কে বদলি করতে হবে। এছাড়া চারজন বিশেষজ্ঞ বোলার নিয়ে মাঠে নামতে হবে টাইগারদের। সেরা একাদশ সাজাতে শেষ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হচ্ছে টিম ম্যানেজমেন্টকে।

চলতি বছর টেস্টে সর্বাধিক রানের মালিক থেকে ৮৫ রান দূরে আছেন প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান ডিন এলগার। এই অভিজ্ঞ ওপেনারের ভালো শুরু ব্যাকফুটে নিয়ে যেতে পারে বাংলাদেশের তরুণ পেস আক্রমণকে।

দক্ষিণ আফ্রিকার একাদশ ঠিক হবে ম্যাচের দিন পিচ দেখার পর। সাত হাজার ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন সেনওয়েস পার্ক মাঠটি স্বাগতিকদের কাছেও খুব পরিচিত নয়। পিচের অবস্থা দেখে শুকনো বোঝা যাচ্ছে। আহামরি মুভমেন্ট না পেলে ভালো ব্যাটিং উইকেট আশা করছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ সম্ভাব্য একাদশঃ তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েস, মুমিনুল হক, মাহমুদউল্লাহ, মুশফিকুর রহিম (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), সাব্বির রহমান, মেহেদি হাসান মিরাজ, তাসকিন আহমেদ, শুভাশিস রায়, মুস্তাফিজুর রহমান।

দক্ষিণ আফ্রিকা সম্ভাব্য একাদশঃ ডিন এলগার, এইডেন মার্করাম, হাশিম আমলা, টেম্বা বাভুমা, ফাফ ডু প্লেসিস (অধিনায়ক), কুইন্টন ডি কক (উইকেটরক্ষক), টিউনিস ডি ব্রুইন/আন্দিলে ফেলুকওয়ায়ো, কেশভ মহারাজ, কাগিসো রাবাদা, মর্নে মরকেল, ডুয়ানে অলিভিয়ের।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

সৌম্যকে পেতে শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত অপেক্ষা

Read Next

ইংলিশদের সিরিজ জয়ে বৃথা গেলো লুইসের শতক

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Total
0
Share