ভারতকে পাত্তা না দিয়ে জিতলো দক্ষিণ আফ্রিকা

দক্ষিণ আফ্রিকা

ধরমশালাতে প্রথম টি-টোয়েন্টি বৃষ্টির কারণে ভেসে গিয়েছিলো। দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে চন্ডিগড়ে ভারত জিতেছিলো ৭ উইকেটের ব্যবধানে। ব্যাঙ্গালুরুতে তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে ৯ উইকেটের দাপুটে জয় দিয়ে সিরিজ ড্র করলো দক্ষিণ আফ্রিকা।

দক্ষিণ আফ্রিকা

সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে ব্যাঙ্গালুরুর চিন্বস্বামী স্টেডিয়ামে টসে জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন ভারতীয় অধিনায়ক ভিরাট কোহলি। বেউরান হেনড্রিক্স, বন ফর্টুইন, তাব্রাইজ শামসিদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে কেবল ১৩৪ রান করতে পারে ভারত। কাগিসো রাবাদা একটু খরুচে হলেও নেন ভিরাট কোহলির উইকেট সহ তিন উইকেট। ৪ ওভারে মাত্র ১৪ রান খরচে ২ উইকেট নেন বেউরান হেনড্রিক্স। শিখর ধাওয়ান ভারতের হয়ে সর্বোচ্চ ৩৬ রান করেন।

১৩৫ রানের সহজ লক্ষ্য তাড়া করতে নামা দক্ষিণ আফ্রিকা দাপুটে শুরু পায় অধিনায়ক কুইন্টন ডি কক ও রেজা হেনড্রিক্সের কল্যাণে। ১০.১ ওভার স্থায়ী উদ্বোধনী জুটি থেকে আসে ৭৬ রান। ২৬ বলে ৪ চারে ২৮ রান করে আউট হন হেনড্রিক্স। এরপর অবশ্য আর কোন সফলতার মুখ দেখেনি স্বাগতিক বোলাররা।

কুইন্টন ডি কক

১৯ বল ও ৯ উইকেট হাতে রেখেই লক্ষ্যে পৌছে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। ৫২ বলে ৬ চার ও ৫ ছয়ে ৭৯ রান করে অপরাজিত থাকেন কুইন্টন ডি কক। টেম্বা বাভুমা অপরাজিত থাকেন ২৭ রান করে।

বেউরান হেনড্রিক্স ম্যাচসেরার পুরষ্কার পান। দুই ম্যাচে ১৩১ রান ও ২ ডিসমিসাল নিয়ে সিরিজ সেরার পুরষ্কার জেতেন প্রোটিয়া অধিনায়ক কুইন্টন ডি কক।

শিহাব আহসান খান

Read Previous

‘ওভাই’ সিরিজের ফাইনালের টিকেট পাবেন যেভাবে

Read Next

এবারের বিপিএলে থাকছেনা ঢাকা ডায়নামাইটস!

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।