৯৭ ডেস্ক

ভারতকে পরাজিত করেই চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির শুরু করতে চান আজহার

ভারত-পাকিস্তানের ক্রিকেট দ্বৈরথ মানেই অন্যরকম কিছু। বিশ্বের অগণিত ক্রিকেট ভক্ত এ লড়াই উপভোগ করেন খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে। আর তাই আইসিসির বড় আসরগুলোতে একই গ্রুপে রাখা হয় চির প্রতিদ্বন্দ্বী এই দুই দলকে। এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লিগও তার ব্যতিক্রম নয়।

বার্মিংহ্যামে জুনের ৪ তারিখে মাঠে গড়াবে পাকিস্তান-ভারতের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ম্যাচ। আর পাকিস্তান বোলিং কোচ আজহার মাহমুদ চাচ্ছেন বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে জয় দিয়েই শুরু হোক পাকিস্তানের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির যাত্রা। পাকিস্তানের ভারতের ম্যাচের গুরুত্ব বোঝাতে নিজের অভিষেক ম্যাচকে টেনে এনে আজহার বলেন,

‘চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির শুরুটা করতে চাই আমরা ভারতকে হারিয়েই। নতুন পাকিস্তানী ক্রিকেটারদের জন্য এ ম্যাচ অন্যরকম গুরুত্ব রাখবে। ভারতের বিপক্ষে দারুণ নৈপুণ্যই তাদের এনে দিবে বিশ্বব্যাপী পরিচিতি। আমার অভিষেকের সময় আমিও চেয়েছিলাম দারুণ কিছু করে দেখাতে। ভারতের বিপক্ষের ম্যাচে দলের জন্য দুর্দান্ত কিছু করার ইচ্ছা আমারও ছিল।’

তবে ভারত-পাকিস্তান ক্রিকেটযুদ্ধে দুই দলেরই থাকবে সমান সমান সম্ভাবনা এমনটা উল্লেখ করে আজহার আরও বলেন, ‘ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ সব সময়ই আলাদা গুরুত্ব বহন করে। চাপের ব্যাপার থাকে, প্রতি মুহুর্ত থাকতে হয় সতর্ক। মানসিক চাপ জয় করতে পারলে আমরাও জয়ের স্বপ্ন দেখতে পারি। কেননা, ভারতের অসাধারণ ব্যাটিং লাইনআপের বিপরীতে আমাদের রয়েছে এক দুর্দান্ত বোলিং লাইনআপ। পাকিস্তানী বোলাররা যদি চাপ নিতে পারে তবে আমি দু’দলেরই ৫০-৫০ সম্ভাবনা দেখছি।’

উল্লেখ্য, আইসিসির বড় আসরের লড়াইয়ে ভারতের বিপক্ষে পাকিস্তানের পরাজয়ের বিশাল ইতিহাসে জয় মাত্র একটিই। তবে পাকিস্তানী ক্রিকেট ভক্তদের জন্য আশার কথা হচ্ছে, ২০০৪ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে বার্মিংহ্যামের মাঠেই বড় আসরে ভারতের বিপক্ষে পাকিস্তানের একমাত্র জয়টি আসে। তার ১৩ বছর পর আবারও সেই মাঠেই চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির লড়াইয়ে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে উপমহাদেশের দুই চির প্রতিদ্বন্দ্বী দল।

মন্তব্য

CRICKET- 97
চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে থাকছে ভারত

রাজস্ব বন্টন চুক্তি নিয়ে আইসিসির সাথে দ্বিমত পোষণ করা ভারতীয় বোর্ড হুমকি দিয়েছিল চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি বর্জনের। তবে আদালত কর্তৃক গঠিত...

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি ভারত

বিস্তারিত

CRICKET- 97
প্রস্তুতি ম্যাচেও থাকবে উত্তাপ

এমনিতে আগামীকাল(৩০শে মে,২০১৭) ওভালে বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচের গুরুত্ব ওভাবে নেই। প্রস্তুতি ম্যাচে মূল আসরের(চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি) আগে নিজেদের ঝালিয়ে নেবার ম্যাচে দুই...

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি প্রস্তুতি ম্যাচ

বিস্তারিত

CRICKET- 97
বিশ্বকাপ ফাইনালের খেলার মতো ছিল: ম্যাথুস

২৫ থেকে ৪০ ওভারের মাঝে ভারতের ব্যাটসম্যানরা সংগ্রহ করে ৮০ রান। একই ওভারগুলোতে শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ১০৩ রান। এখানেই কি পিছিয়ে...

বিস্তারিত