বিকেএসপির মাঠকর্মীদের বিপক্ষে আফগানদের ভয়াবহ অভিযোগ

বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেট অনেক পক্ষপাতদুষ্ট ঘটনার সাক্ষী। প্রভাবশালী ক্লাবকে জেতাতে গিয়ে আম্পায়ার, ম্যাচ অফিসিয়ালরা প্রশ্নবিদ্ধ হওয়ার ঘটনা নিয়মিতই। তবে এবার আন্তর্জাতিক একটি দলের বিপক্ষেই কিনা ঘটলো এমন ঘটনা, সম্প্রতি বাংলাদেশ সফরে আসা আফগান ‘এ’ দলের সাথে বিকেএসপি মাঠে মাঠকর্মীদের ইচ্ছাকৃত অবহেলাতেই আফগানদের নিশ্চিত জয়ের পথে থাকা ম্যাচটি পরিত্যাক্ত হয় বলে অভিযোগ উঠেছে।

ছবিঃ আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড

গত ২৯ জুলাই দুটি চারদিনে ম্যাচ ও পাঁচটি একদিনের ম্যাচ সিরিজ শেষে দেশের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেয় আফগানিস্তান ‘এ’ দল। সফরে ইমরুলে কায়েসের বাংলাদেশ ‘এ’ দলকে চারদিনের ম্যাচ সিরিজে হারানোর পর একদিনের সিরিজেও হারানোর পথেই ছিল নাসির জামালের নেতৃত্বাধীন আফগান ‘এ’ দল। চট্টগ্রামে তিনম্যাচে দুটিতে জিতে সিরিজ জয়ের দ্বারপ্রান্তেই ছিল আফগানিস্তান।

সাভারের বিকেএসপিতে চতুর্থ ওয়ানডে বৃষ্টিতে হয় পরিত্যাক্ত আর শেষ ওয়ানডেতে জয় তুলে সিরিজ সমতায় আনে বাংলাদেশ ‘এ’ দল। কিন্তু পরিত্যাক্ত হওয়া চতুর্থ ওয়ানডে ম্যাচ নিয়ে আফগানদের রয়েছে বেশ কড়া অভিযোগ। বৃষ্টির কারণে ৪৪ ওভারে নেমে আসা ম্যাচে আগে ব্যাট করা বাংলাদেশ ‘এ’ অল আউট হওয়ার আগে তুলতে পারে ১৭৬ রান। ডি/এল মেথডে আফগানদের জন্য লক্ষ্য দাঁড়ায় ৪০ ওভারে ১৮৭। ব্যাট করতে নেমে মাত্র ৮.২ ওভারে কোন উইকেট না হারিয়ে তোলে ৫৭ রান এরপর আবার হানা দেয় বৃষ্টি। প্রায় ২০ মিনিট ধরে হওয়া বৃষ্টির পর চাইলেই অনায়াসেই শুরু করা যেত ম্যাচ। অথচ মাঠকর্মীদের ইচ্ছাকৃত অবহেলায় নাকি পানি শুকানোর কাজ না করে উল্টো কাভারের পানিতে ভাসিয়ে দেওয়া হয় মাঠ।

মাঠকর্মীদের ইচ্ছাকৃত অবহেলা সম্পর্কে তুলে ধরতে গিয়ে দেশের অন্যতম জাতীয় দৈনিক ডেইলি স্টারকে আফগান দলপতি নাসির জামাল জানান, ‘ বৃষ্টি আসার আগে চতুর্থ ওয়ানডেতে আমরা জয়ের পথেই ছিলাম। ১৮৭ রানের লক্ষ্য দেয় তারা আমাদের , আমরা ৮ ওভারেই বিনা উইকেটে ৬০ এর মত (মূলত ৫৭) জরে ফেলি। মাঠকর্মীদের নিয়ে আমি খুশি নই। খুব জোরে বৃষ্টি হয়েছিল তা কিন্তু নয়, বৃষ্টি থামার পর তারা পেশাদার কায়দায় কবার সরায়নি। আমার মনে হয় তারা জানা স্বত্বেও সঠিক পন্থা অবলম্বন করেনি।’

ম্যাচ পরিত্যাক্ত ঘোষণা করা রেফারি শওকতুর রহমানের কাছে ম্যাচ শেষেই লিখিত অভিযোগ করে আফগান দল, এ প্রসঙ্গে নাসির জামাল বলেন, ‘আমরা ম্যাচ পরিত্যক্ত ঘোষণার পরই ম্যাচ রেফারির কাছে অভিযোগ করেছি। বলেছি মাঠকর্মীরা ম্যাচটি ধ্বংস করে দিয়েছে।’

ম্যাচ রেফারির সাথে ডেইলি স্টার থেকে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ প্রসঙ্গে কথা বলতে রাজি হননি। এদিকে বিসিবি নির্বাহী নিজাম উদ্দিন জানিয়েছেন লিখিত অভিযোগ পেলে অবশ্যই ঘটনা খতিয়ে দেখবেন।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

রংপুর রাইডার্সে সাকিব আল হাসান

Read Next

শ্রীলঙ্কায় হোয়াইটওয়াশ হলো বাংলাদেশ

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।