টেস্ট অভিষেকের দ্বারপ্রান্তে আফগানিস্তান

আফগানিস্তান, একটা সময় নামটা শুনলেই চোখে ভাসতো যুদ্ধ বিদ্ধস্ত একটি জনপদের কথা। ক্রিকেট সেতো দূর আকাশের ধ্রুবতারা। মোহাম্মদ নবী, রাশিদ খান’রা আজ সেই আফগানিস্তানকেই বিশ্বের কাছে নতুন করে পরিচিয় করিয়ে দিচ্ছে ক্রিকেট দিয়ে।

২০০৯ সালে ওয়ানডে স্ট্যাটাস পাওয়ার পর নিজেদের সামর্থ্যের পরিচয় দিয়েই যাচ্ছিল আফগানিস্তান। যথাযথ সুবিধা না পেয়েও চমক লাগানো পারফরম্যান্স দিয়ে মুগ্ধ করছিল ক্রিকেট ভক্তদের। জিম্বাবুয়ের সাথে জিতেছিল টানা তিনটি সিরিজ, কিছুদিন আগে ওয়েষ্ট ইন্ডিজের সাথেও করেছিল সিরিজ ড্র। গত কয়েক বছরের ধারাবাহিক পারফর্ম্যান্স আফগানিস্তানের টেষ্ট স্ট্যাটাস পাওয়ার পক্ষে দারুন দাবি তুলেছিল।

এবছরের জুনের প্রথম দিকেই আফগান ক্রিকেট পায় তাদের ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা খবর। আয়ারল্যান্ডের সাথে আফগানিস্তানও পায় আইসিসির পূর্ণসদস্যের মর্যাদা।

আর দারুন খবর হল তাদের প্রথম টেষ্ট খেলার জন্যেও হয়ত আর বেশীদিন অপেক্ষা করতে হচ্ছেনা। কথা বার্তা হচ্ছে জিম্বাবুয়ে বোর্ডের সাথে, প্রাথমিকভাবে সাড়াও দিয়েছে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট বোর্ড। সম্ভাব্য সূচীতে থাকতে পারে ১ টেষ্ট, ৫ ওয়ানডে ও ২ টি টি২০ ম্যাচ।

নিজেদের মাঠে এখনো ম্যাচ আয়োজনের পরিস্থিতি না থাকায় ভারত কিংবা আরব আমিরাতই হতে পারে আফগানিস্তানের ঘরের মাঠ। আর সব ঠিকঠাক থাকলে এটিই হতে যাচ্ছে আফগানিস্তান ক্রিকেটের সেরা মাইলফলক।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

আজীবন নিষিদ্ধ হচ্ছেন শারজিল খান ও খালিদ লতিফ

Read Next

আরেকটা বিশ্বকাপ খেলতে পারবেন তো ধোনি-যুবরাজ!

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।