ওয়াসিমের মতে হায়দার পাকিস্তানের ‘এক্স ফ্যাক্টর’

হায়দার আলি এক্স ফ্যাক্টর- ওয়াসিম আকরাম

অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ দিয়ে নজর কেড়েছেন, সামর্থ্যের জানান দিয়েছেন পাকিস্তান সুপার লিগেও (পিএসএল)। যার পুরষ্কার হিসেবে চমক হয়ে জায়গা করে নেন ইংল্যান্ড সফরের পাকিস্তানের টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডে। প্রথম দুই ম্যাচে খেলার সুযোগ না পেলেও শেষ ম্যাচে অভিষেক ইনিংসেই রেকর্ড গড়েন হায়দার আলি। দলের বিপর্যয়ে খেলেন ভয়ডরহীন ক্রিকেট, প্রথম পাকিস্তানি হিসেবে টি-টোয়েন্টি অভিষেকেই পান ফিফটির দেখা।

মোহাম্মদ হাফিজের সাথে ৬১ বলে ১০০ রানের জুটি গড়ার পথে নিজে খেলেছেন ৩৩ বলে ৫৪ রানের ইনিংস। ৫ রানে জয় পাওয়া পাকিস্তান সিরিজ শেষ করে ১-১ ব্যবধানে ড্র করে। ইংল্যান্ডের মত দলের বিপক্ষে আন্তর্জাতিক অভিষেকেই এমন পারফরম্যান্স নজর কাড়ে সবার। সাবেক পাকিস্তানি তারকা ওয়াসিম আকরামতো তাকে এক্স ফ্যাক্টর বলেও আখ্যায়িত করেছেন।

 

View this post on Instagram

 

First Pakistani to score 50 on T20I debut. This lad is talented. #ENGvPAK

A post shared by cricket97 (@cricket97bd) on

ম্যাচ পরবর্তী স্কাই স্পোর্টসের সাথে আলাপে ওয়াসিম আকরাম বলেন, ‘সে (হায়দার আলি) কোথায়? প্রথম দুই ম্যাচে পুরো দেশের লোকজন এমনটিই বলেছে। অবশেষে সে সুযোগ পেয়েছে এবং বিশ্বের অন্যতম সেরা দলের বিপক্ষে নিজের প্রতিভার জানান দিয়েছে। সে যে শটগুলো খেলেছে তা স্লগ ছিলনা।’

‘এরকম একজন এক্স-ফ্যাক্টরের অভাবেই ভুগছিল পাকিস্তান। এখন সে একাদশে এবং তিন নম্বরে খেলছে আর এটিই খুঁজে বেড়ানো সেই এক্স-ফ্যাক্টর। তার মত তরুণ প্রতিভা পাওয়াটা পাকিস্তানের জন্য দারুণ ব্যাপার। তার উজ্জ্বল ভবিষ্যত আছে যা পাকিস্তান ও ক্রিকেট বিশ্বের জন্যই দুর্দান্ত হবে।’ যোগ করেন পাকিস্তান কিংবদন্তী।

১৯ বছর বয়সী হায়দারের ভয়ডরহীন ক্রিকেটের প্রশংসা করে ওয়াসিম আকরাম আরও বলেন, ‘টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট ভয়ের বিষয় না, যদি আপনি ছক্কা হাঁকান এবং আবারও ছক্কার জন্য খেলেন। ৯০ এর দশকের ক্রিকেটে একটি বাউন্ডারি মারার পর আরেকটি সিঙ্গেল নেওয়ার দরকার পড়তনা। এটাই হায়দার বয়ে আনছে, তার ইতিবাচকতা নতুন কিছু। তার শট খেলতে দেখাটা আনন্দেরও।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

টিকেআরের আরো এক জয়ের দিন সিমন্সের সেঞ্চুরি মিস

Read Next

ফ্লাইট বাতিলে ডাবল করোনা টেস্ট ঝামেলায় ডোমিঙ্গো-কুক

Total
38
Share
error: Content is protected !!