উড়তে থাকা স্কটল্যান্ডকে মাটিতে নামালো পাকিস্তান

আইসিসির নতুন নিয়মে জায়গা হয়নি বিশ্বকাপের বড় আসরে। কিন্তু সহযোগী দেশ হিসেবে তারা বরাবরই চমকে দিয়ে থাকে বড় দলগুলোকে। মাত্র এক ম্যাচ আগেই ওয়ানডের এক নম্বর দল ইংল্যান্ডকে নাকানি চুবানি খাইয়ে ম্যাচ জয়ের সুখস্মৃতি এখনো অমলিন। মঙ্গলবার দুই ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে মাঠে নেমেছিল টি-টোয়েন্টির সেরা দল পাকিস্তানের বিরুদ্ধে। তবে এবার আর পেরে উঠা হলো না তাদের, এডিনবার্গে ৪৮ রানে ম্যাচ হেরেছে স্বাগতিক স্কটল্যান্ড।

টসে জিতে পাকিস্তানের অধিনায়কের প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত। স্কটল্যান্ডের ছোট মাঠে পাকিস্তানি ব্যাটসম্যানেরা রীতিমত রাজ চালিয়েছেন। দু’শো পার করা স্কোরে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানদের অবদান নগণ্য।  ইনিংসের শুরুতেই অ্যালাসডায়ার ইভান্সের জোড়া আঘাত। ১৫ বলে ২১ রান করে ফেরেন ফখর জামান। শেহজাদ ফেরেন ১২ বলে ১৪ রান করে। এরপর উইকেটে আসা হোসাইন তালাতও টিকতে পারেননি বেশি সময়। এগারোতম ওভারের চতুর্থ বলে  ১৮ রান করে তালাত ফিরে গেলে পাকিস্তান ৮৭ রানে তিন উইকেট হারিয়ে ফেলে। বাকি সময়টা অধিনায়ক সরফরাজ ও শোয়েব মালিক মিলে তাণ্ডব চালিয়েছেন।

সরফরাজ-মালিক জুটিতে ৪৯ বলে ৯৬ রান জমা হয় পাকিস্তানের স্কোরবোর্ডে। উড়তে থাকা স্কটল্যান্ডের বোলারদের মাটিতে নামিয়ে আনেন তারা। ৫ ছয়ে ২৭ বলে ৫৩ রান করে মালিক আউট হলেও সরফরাজ অপরাজিত থাকেন ১০ চার ৩ ছক্কায় ৪৯ বলে  ৮৯ রান করে। ২০ ওভার শেষে পাকিস্তানের ইনিংস থামে ৪ উইকেটে ২০৪।

স্কটল্যান্ডের হয়ে পেসার ইভান্স ৪ ওভারে ২৩ রান দিয়ে ৩ উইকেট তুলে নেন।

২০৫ রানের আকাশছোঁয়া টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে স্কটল্যান্ডের শুরুটা হয়েছিল দুর্দান্ত। দুই ওপেনার মিলে ৫ ওভারে তুলে নেয় ৫৩ রান। ২৫ রান করা মানজিকে ফিরিয়ে তাদের জুটি ভাঙ্গেন পেসার হাসান আলী। এরপরেই শাদাব খানের আঘাত, তিন নম্বরে নামা বেরিংটনকে বোল্ড করে ফেরত পাঠান তিনি। অধিনায়ক কোয়েতজার হাল ধরতে পারেননি দুঃসময়ে। মোহাম্মদ নেওয়াজের বলে ১৮ বলে ৩১ রান করে আসিফ আলীকে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান তিনি।

কোয়েতজারের বিদায়ের পর হুড়মুড় করে ভেঙে পড়ে স্কটল্যান্ডের ইনিংস। ২০ ওভারে শেষে তাদের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৬ উইকেট হারিয়ে ১৫৬ রান। স্কটল্যান্ড ম্যাচ হারে ৪৮ রানে। মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান মাইকেল লিস্ক অপরাজিত থাকেন ২৪ বলে ৩৮ রান করে।

পাকিস্তানের পক্ষে শাদাব ও হাসান আলী দুটি করে উইকেট লাভ করেন। এছাড়াও মুহাম্মদ আমির, মুহাম্মদ নেওয়াজ একটি করে উইকেট দখল করেন। দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে আগামি বুধবার।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

পাকিস্তান: ২০৪/৪ (২০ ওভার), ফখর ২১, শেহজাদ ১৪, তালাত ১৮, সরফরাজ ৮৯*, মালিক ৫৩, আসিফ ১*; শরিফ ০/৪৩, ওয়াট ০/৪২, তাহির ০/৫৭, ইভান্স ৩/২৩, লিস্ক ০/৬, বেরিংটন ১/২৯

স্কটল্যান্ড: ১৫৬/৬ (২০ ওভার), মানজি ২৫, কোয়েতজার ৩১, বেরিংটন ৩, ম্যাক্লাউড ১২, বাজ ২৪, লিস্ক ৩৮*, ক্রস ১৩, শরিফ ৩*; নওয়াজ ১/২২, আমির ১/৪৫, হাসান ২/৩৩, ফাহিম ০/২৩, শাদাব ২/২৫, তালাত ০/৪

ফলাফলঃ পাকিস্তান ৪৮ রানে জয়ী (১-০ তে সিরিজে এগিয়ে পাকিস্তান)

ম্যান অব দা ম্যাচঃ সরফরাজ আহমেদ

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

সাকিব-মাশরাফি-রিয়াদদের প্রতিপক্ষ তামিম!

Read Next

‘খেলতে গেলে এমন ইনজুরি হবেই’

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।