৯৭ ডেস্ক

সাইফউদ্দিনের বোলিং তোপে দিশেহারা প্রাইম দোলেশ্বর

ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের (ডিপিএল) সুপার লিগ রাউন্ডের প্রথম ম্যাচে মিরপুরের আজ আবাহনীর দেওয়া ২৫২ রানে লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমেছিলো প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব। তবে ম্যাচে তাদের একেবারে সুবিধা করতে দেননি আবাহনীর বোলাররা, আরও নির্দিষ্ট করে বললে দলটির পেসার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। নিজের করা প্রথম স্পেলের ৬ ওভারেই মাত্র ৯ রান দিয়ে তুলে নিয়েছেন ৫ উইকেট, যেখানে মেডেন নিয়েছেন ২টা।

ফাইল ফটো

এদিন আগে ব্যাট করতে নেমে ওয়াশিম জাফর আর নাজমুল হোসেনের শান্তর অর্ধশতকের সাথে শেষ দিকে মোহাম্মদ মিঠুনের ৪১ রানের কল্যাণে অলআউট হওয়ার আগে ২৫১ রানের সংগ্রহ পায় আকাশী-নীলরা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে সাইফউদ্দিনে আগুনে বোলিংয়ে শুরুতেই তাসের ঘরের মত ভেঙে পড়ে দোলেশ্বরের ব্যাটিং লাইনআপ। শুরুটা করেন ইমরান উজ্জামানকে দিয়ে। এরপর একে একে ফিরিয়েছেন সৈকত আলী (১), ফরহাদ হোসেন (১১), মার্শাল আইয়ুব (১) ও সাইফ হাসান (১৩) কে।

সাইফউদ্দিনের তাণ্ডবে স্পেলেই মাত্র ৪৩ রান তুলতে ৫ উইকেট হারিয়ে বসে প্রাইম দোলেশ্বর। এরপর ৫ রানে থাকা তাইবুর রহমানকে সৌম্য সরকার, ৩ রানে থাকা ফরহাদ রেজাকে নাজমুল ইসলাম অপু ও ১৪ রানে থাকা এনামুল হক জুনিয়রকে সানজামুল ইসলাম দ্রুত আউট করে দিলে দলীয় ৬৮ রানেই ৮ উইকেট হারিয়ে বসে ফরহাদ রেজার দল। খানিক বাদে আরাফাত সানি ২ রানে মিরাজের ও সমান ২ রানে আবু জায়েদ আউট হয়ে গেলে মাত্র ৮৬ রানেই গুটিয়ে যায় প্রাইম দোলেশ্বর। ১৬৫ রানে জয় তুলে নিয়ে মাঠ ছাড়ে আবাহনী লিমিটেড।

এর আগে টসে হেরে নিজেদের ইনিংসের শুরু করতে আসেন আবাহনীর দুই ব্যাটসম্যান ইনফর্ম জহুরুল ইসলাম ও সৌম্য সরকার। তবে আজ একেবারেই সুবিধা করতে পারেননি জহুরুল, ইনিংসের দ্বিতীয় ও ফরহার রেজার করা প্রথম ওভারেই ফিরেছেন ১ রান করে। জহুরুলের আউটের পরের ওভারে নতুন ব্যাটসম্যান মিরাজও একই পথের সারথি হয়েছেন ৫ রানের মাথায়।

খানিক বাদে ব্যর্থতার খাতাতে নাম তুলেছেন আরেক ওপেনার সৌম্য সরকারও, ১৩ বল থেকে দুই রান করে হয়েছেন আবু জায়েদ রাহির দ্বিতীয় শিকার। এরপর বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের হাল ধরেন দলের ভারতীয় রিক্রুট ওয়াশিম জাফর ও নাজমুল হোসেন শান্ত, চতুর্থ উইকেট জুটিতে দেখেশুনে খেলে দুজন যোগ করেন ১৪৬ রান। নিজের অর্ধশতক পূরণ করে জাফর ৭১ রানে আরাফাত সানির বলে আউট হয়ে গেলে ভাঙে এই পার্টনারশিপ।

ম্যাচের পূর্বে অনুশীলনে আবাহনী শিবির

সেখান থেকে নতুন ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুনের সাথে ৩২ রান যোগ করার পর শান্তও ৭০ রান করে ফিরে গেলে দোলেশ্বরের বোলার সাইফ হাসান ওই ওভারেই শূন্য হাতে ফেরান আবাহনীর অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতকে। পরে মিঠুনের ৪১ রানের সাথে মাশরাফি বিন মর্তুজার ২১ বলে ২৪ রানের কল্যাণে অল আউট হওয়ার আগে ২৫১ রানের পুঁজি পায় আবাহনী।

মন্তব্য

CRICKET- 97
রানমেশিন তুষার ইমরান

২০০০ সালের শুরুর দিক। এক তরুণ ব্যাটসম্যানকে নিয়ে বেশ চর্চা হচ্ছিলো ক্রিকেট পাড়ায়। ধানমন্ডি ক্রিকেট ক্লাব এর তুষার ইমরান, যিনি...

তুষার ইমরান

বিস্তারিত

CRICKET- 97
‘মুশফিকের অধিনায়কত্বে খেলাটা বেশ উপভোগ্য’

নিজেই কাপ্তানির দায়িত্বটা নিতে অনুরোধ করেছিলেন বাংলাদেশ দলের টেস্ট কাপ্তান মুশফিকুর রহিমকে। মাশরাফি বিন মর্তুজার অনুরোধ রেখে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে...

ডিপিএল

বিস্তারিত

CRICKET- 97
খেলাঘরের অমিতের ঝড়ো শতকে পারটেক্সের টানা দ্বিতীয় পরাজয়

এবারের ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের অন্যতম সেরা দিকের মধ্যে একটি হলো বাংলাদেশী ঘরো ক্রিকেটারদের নিজেদের পাদপ্রদীপের আলোতে তুলে আনা। সেই ধারাবাহিকতায়...

ডিপিএল

বিস্তারিত

  • Developed By :