৯৭ ডেস্ক

বিশ্বকাপে অর্থের ছড়াছড়ি, চ্যাম্পিয়ন দলের পুরস্কার ছাড়াবে অতীতকে

আসন্ন ইংল্যান্ড ও ওয়েলস বিশ্বকাপের বাকী আর মাত্র কয়েকদিন। আয়োজনের সব প্রস্তুতি চূড়ান্ত পর্যায়ে হলেও বিশ্বকাপের পুরস্কারের আর্থিক অঙ্কের বিষয়টি রয়ে গিয়েছিলো অজানা। আজ (১৭ মে) আইসিসি সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানিয়ে দিলো সেটিও। টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন দলের পুরস্কারের অর্থ ছাড়িয়ে যাবে অতীতের যেকোনো সময়কেই।

বিশ্বকাপ ট্রফি

দীর্ঘ ২০ বছর পর ইংলিশরা বিশ্বকাপ আয়োজন করতে যাচ্ছে। ৪৬ দিন ব্যাপী চলা ১০ দলের এই টুর্নামেন্টে বিজয়ী দল পাবে বড় অঙ্কের আর্থিক পুরস্কার। যার আর্থিক মূল্য ৪ মিলিয়ন ডলার, যেখানে টুর্নামেন্টের পুরস্কার বাজেটই ১০ মিলিয়ন ডলার।

রানার্স আপ দলও পাবে বেশ ভালো অঙ্কের অর্থই। চ্যাম্পিয়নদের অর্ধেক অর্থাৎ ২ মিলিয়ন ডলার। ফলে পুরস্কার বাজেটের ৬০ ভাগই যাবে চ্যাম্পিয়ন-রানার্স আপ দলের পকেটে। দুই ফাইনালিস্টের মত বড় অঙ্কের নাহলেও আর্থিক পুরস্কার পাবে অংশ নেওয়া সব দলই, থাকছে ম্যাচ জিতলেই অর্থ।

লিগ পর্বে জেতা প্রতিটি ম্যাচের জন্যই জয়ী দল পাবে ৪০,০০০ ডলার। সেমিফাইনালে উঠেও স্বপ্ন ভাঙ্গা দুই দলও পাবে প্রায় মিলিয়ন ডলার করে আর্থিক পুরস্কার। সেমিফাইনাল হারা দল দুটির ভাগে পড়বে ৮ লাখ ডলার করে।

একদম কোন ম্যাচ না জিতলেও দলগুলো পাবে আর্থিক পুরস্কার। সেমিফাইনালে পৌঁছাতে না পারা ৬ দল পাবে ১ লাখ ডলার করে। তাই বলাই যায় বিশ্বকাপের ১২ তম আসরে অংশ নেওয়া দলগুলো বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থার কাছ থেকে পাবে ভালো আর্থিক সাহায্যই।

অর্থ বণ্টনের তালিকা

প্রসঙ্গত, অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডে হয়ে যাওয়া ২০১৫ বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছিল বাংলাদেশ দল। লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা গ্রুপ পর্বে দুই ম্যাচ হারলেও জিতেছিলো ইংল্যান্ড, আফগানিস্তান আর স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে। সাথে একটি ম্যাচ হয়েছিল পরিত্যক্ত। তিন ম্যাচে জয়ের জন্য মাশরাফি বিন মর্তুজার দল সেবার পেয়েছিল ১ লাখ ৩৫ হাজার ডলার। আর কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার জন্য আরও তিন লাখ ডলার। সব মিলে পেয়েছিল ৪ লাখ ৫৭ হাজার ডলার।

মন্তব্য

  • Developed By :